নয়াদিল্লি: হরিয়ানার বিধানসভা নির্বাচনের দিনই বিজেপিকে একহাত নিলেন রাহুল গান্ধী। সোমবার একটি ভিডিও ট্যুইটে পোস্ট করে তিনি লেখেন ‘ইনিই হলেন বিজেপির সবথেকে সৎ ব্যক্তি’। এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে হরিয়ানা বিধানসভা নির্বাচনের এক বিজেপি প্রার্থী জনতার উদ্দেশ্যে বলছেন, ‘ইভিএমে যে বোতামই টিপুন না কেন, ভোট শাসক দলের বাক্সেই জমা হবে।’

গত নির্বাচনে বিপুলভাবে ক্ষমতায় এসেছিলেন বিজেপির মনোহর লাল খট্টর। এবারে দ্বিতীয় ইনিংসেও ফিরতে মরিয়া বিজেপি। কিন্তু, এর মাঝেই এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ায় প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবির।

রাহুলের শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা গিয়েছে আসান্ধের বিজেপির বিধায়ক বখশিস সিংহ ভির্ককে। তাঁর মুখেও শোনা গিয়েছে ওই কথা। এই ভিডিও ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে নির্বাচন কমিশন। ভির্ককে নোটিশ পাঠানোর পাশাপাশি কার্নাল জেলার আসান্ধে ডেপুটি কমিশনার বিনোদ জুৎসিকেও পাঠানো হয়।

রবিবার সাংবাদিকদের এই প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশন জানায়, “অবাধ,নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্যই জুৎসিকে আসান্ধে পাঠানো হয়েছে। সমস্ত দিক বিবেচনা করে তিনি উপযুক্ত পদক্ষেপ নেবেন।”

যদিও বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের তরফ থেকে বখশিস সিংহ ভির্কের এই ভিডিও ‘ভুয়ো’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে, বিরোধীরা বহুদিন ধরেই অভিযোগ জানিয়ে এসেছে নির্বাচনে বারংবার কারচুপি করছে বিজেপি। ইভিএম ‘হ্যাক’ করার অভিযোগ করতে শোনা যায় বহু বিরোধী দলকে। আর বিজেপি বিধায়কের এই ধরনের বক্তব্যকেই হাতিয়ার করেছে কংগ্রেস। এই ঘটনা প্রসঙ্গে হরিয়ানার কংগ্রেস সভাপতি কুমারী শৈলজা জানান, এই নির্বাচনেই হরিয়ানার মানুষের কাছে ‘প্রত্যাখাত’ হবে বিজেপি। আর মানুষের উপর থেকে বিশ্বাস হারিয়েই এই ধরনের মন্তব্য করেছেন ওই বিজেপি বিধায়ক।