হাওড়া: করোনাকে পাশবালিশ করে নেওয়ার মুখ্যমন্ত্রীর বার্তায় প্রতিবাদে নামল বিজেপি যুব মোর্চা। একই সঙ্গে তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিও জানিয়েছে।

একসঙ্গে ভিন রাজ্য থেকে প্রচুর সংখ্যায় পরিযায়ী শ্রমিকরা ফিরছেন রাজ্যে। এদের মধ্যে কয়েকজনের শরীরে মিলছে করোনা ভাইরাস। এইকারণে করোনা বাড়ছে। আপ্রাণ চেষ্টা করেও করোনা পুরোপুরি আটকানো ক্রমশ কঠিন হয়ে উঠছে বলে শুক্রবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ওইদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেছিলেন, “এখন আর উপায় নেই। সবাইকে নিয়েই থাকতে হবে। করোনাকে নিয়ে ঘুমোন। করোনাকে পাশবালিশ করে নিন। ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। নিয়ন্ত্রণের চেষ্টাও করেছি। কিন্তু সব আমার হাতে নেই।”

মুখ্যমন্ত্রীর ওই বক্তব্যের রেশ ধরেই শনিবার দুপুরে হাওড়ায় অভিনব প্রতিবাদ কর্মসূচি নেয় বিজেপি। বিজেপি যুব মোর্চা কর্মীরা হাওড়ায় এসডিও অফিসের গেটের সামনে ‘করোনা পাশবালিশ’ নিয়ে রাস্তায় শুয়ে প্রতিবাদ করে। শ্লোগান দেয়। বিক্ষোভ দেখায়। মুখ্যমন্ত্রীর অপসারণ দাবি করে তারা।

পরে পুলিশ এসে যুব মোর্চা কর্মীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়।বিজেপি যুব মোর্চার হাওড়া সদরের সাধারণ সম্পাদক অমিত বসু বলেন, আমরা যুব মোর্চার কর্মীরা এখানে সোস্যাল ডিসট্যান্স বজায় রেখেই দলের কর্মসূচি পালন করছিলাম। পুলিশ এসে বলপূর্বক আমাদের সরিয়ে দিয়েছে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

Tree-bute: রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও