কলকাতা: সামনেই তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রে হবে উপনির্বাচন। আর এই নির্বাচন উপলক্ষে রাজনৈতিক দলগুলি ক্রমেই নিজেদের ঘুঁটি সাজাচ্ছে। প্রস্তুত করছে রণকৌশলের।

আর সেই নির্বাচনী প্রচারে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের সঙ্গে প্রচারে সঙ্গী হওয়াতে থানাপাড়া পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন চার্জ সুমিত ঘোষের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে গিয়ে নালিশ জানিয়েছে গেরুয়া শিবির। অভিযোগপত্রে বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয়েছে অভিযুক্ত পুলিশ অফিসার তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের সঙ্গে প্রচারে সঙ্গী হওয়াতে নিয়ম বিরুদ্ধে কাজ করেছেন। অর্থাৎ নির্বাচনের আগে চিন্তার ভাঁজ পড়ল তৃণমূলের কপালে।

নির্বাচন কমিশনে বিজেপির তরফ থেকে যে চিঠি দেওয়া হয়েছে তাতে লেখা রয়েছে নদীয়া জেলার থানাপারা পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন চার্জ সুমিত ঘোষ এই সাংসদের সঙ্গে বাড়ি বাড়ি প্রচার করতে গিয়ে নির্বাচনী বিধি ভেঙেছেন। যার ফলে সাধারণ মানুষের কাছে একটি ভুল বার্তা যাবে। এমনটাই জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপির সেক্রেটারি তুষার কান্তি ঘোষ। হওয়া একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে আসন্ন উপনির্বাচন উপলক্ষে মহুয়া মৈত্রের সঙ্গে এই অফিসার বাড়ি বাড়ি ঘুরে প্রচারে যোগ দিয়েছেন।

বিজেপির তরফ থেকে জানানো হয়েছে অভিযুক্ত অফিসারকে দ্রুত অন্যত্র বদলি করে দেওয়া হোক। এছাড়াও তাঁর বিরুদ্ধে যাতে পদক্ষেপ নেওয়া হয় তা তারা জানিয়েছেন। নভেম্বরের ২৫ তারিখে করিমপুর,কালিয়াগঞ্জ এবং খড়গপুর সদরে হবে উপনির্বাচন। সেই উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ব্যস্ত হয়ে রয়েছে প্রচারে। গত নির্বাচনে যেভাবে রাজ্যতে হিংসা ছড়িয়েছিল তা যাতে আর না হয় সেই কারনে এবারে চিন্তিত নির্বাচন কমিশন স্বয়ং। আর সেই কারণে নির্বাচনের অনেক আগেই এইসব জায়গাতে পা রাখবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। অর্থাৎ এই নির্বাচন উপলক্ষে কোন দল যে কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না তা একপ্রকার নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে।