স্টাফ রিপোর্টার, বারুইপুর: ২০৪৪ সাল পর্যন্ত বিজেপিকে কেউ হঠাতে পারবে না। তবে এই ভিত মজবুত করার জন্য ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির জয়লাভ এবং নরেন্দ্র মোদীর প্রধানমন্ত্রী হওয়া আবশ্যক।

এমনই মনে করেন ভারতীয় জনতা পার্টির জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার এক কর্মী সম্মেলনে দলের এই ধরনের বক্তব্যের মাধ্যমেই কর্মীদের উজ্জীবিত করেন তিনি।

এ দিন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বারুইপুরে বঙ্গ বিজেপির ওবিসি মোর্চার রাজ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেই অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন বিজেপির জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির দুই সদস্য মুকুল রায় এবং জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও ছিলেন ওবিসি মোর্চার সভাপতি স্বপন পাল।

ওই কর্মী সম্মেলনে কর্মীদের উদ্দেশ্যে জয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারত আবার জগতসভায় শ্রেষ্ঠ আসন পাবে। এর জন্য ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে জিতিয়ে মোদীকে প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।” একই সঙ্গে তিনি আরও বলেন, “২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি জিতলে আগামী ২৫ বছরে আমাদের আর কোনও প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতে থাকবে না।”

২০১৯ সালে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। সেই নির্বাচনে জেতার কথা বলেছেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। যার অর্থ ওই নির্বাচনের পর বিজেপি ক্ষমতা দখল করতে পারলে ২০৪৪ সাল পর্যন্ত দেশের শাসনভার পদ্মের উপরেই থাকবে। তবে তারপরে কী হবে সেই বিষয়ে কিছু বলেননি জয়।

২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দেশের ক্ষমতা দখল করেছিল বিজেপি। যার প্রধান মুখ ছিলেন নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় ভারত একটা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছিল বলে দাবি করেছেন জয়। একই সঙ্গে তিনি আরও জানিয়েছেন যে মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর দেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এখন চিন-পাকিস্তান সহ বিশ্বের অন্যান্য শক্তিধর দেশগুলিও ভারতকে সমীহ করে চলে বলে দাবি করেছেন জয়।