কলকাতা: লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের খারাপ ফলের পর জনসংযোগের কথা চিন্তা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর উদ্যোগের তৃণমূলের বিশেষ জনসংযোগ কর্মসূচী শুরু হয়। বুথে বুথে ঘুরে কর্মীদের সঙ্গে কথা বলছেন তৃণমূলের প্রথম সারির নেতারা । এবার তারই পাল্টা হিসেবে নতুন কর্মসূচী নিতে চলেছে বিজেপি।

পুজোর ছুটি শেষ হলেই মাঠে নেমে পড়বে গেরুয়া বাহিনী। ১৫ অক্টোবর মঙ্গলবার রাজ্য জুড়ে শুরু হচ্ছে বিজেপির গান্ধী সংকল্প যাত্রা। এই কর্মসূচি পালিত হবে প্রতিটি লোকসভা কেন্দ্রে। অংশ নেবেন স্থানীয় সাংসদ এবং লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থীরা।

তৃণমূলের জনসংযোগের মোকাবিলা করতেই মহাত্মা গান্ধীর নাম নিয়ে তাঁরা রাস্তায় নামবেন বলে সূত্রের খবর। ১৫ অক্টোবর থেকে রাজ্য ব্যাপী তাদের যে কর্মসূচি শুরু হতে চলেছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে গান্ধী সংকল্প যাত্রা। ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে সেই যাত্রা। এই ১০ দিনে বিজেপি নেতা কর্মীদের হাঁটতে হবে ১৫০ কিমি। বিজেপি সাংসদ, বিধায়করা ছাড়াও কর্মসূচিতে জেলাস্তরের নেতাদের পাশে থাকবেন রাজ্যের নেতারাও।

বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার জানিয়েছেন, প্লাস্টিক বর্জন, রাজনীতিতে স্বচ্ছতা এবং দুর্নীতি মুক্ত রাজনীতির দাবি-সহ ১০ দফা দাবিতে এই পদযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। সারা দেশেই চলছে এই কর্মসূচী। ২ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এই কর্মসূচি চলবে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। ওই দিন বল্লভভাই প্যাটেলের জন্মদিন। তবে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সেই কর্মসূচি পালন করা হবে ১৫ থেকে ২৫ অক্টোবর।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও