কলকাতা: ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় বিজেপিই ক্ষমতা দখল করবে বলে আত্মবিশ্বাসী রহুল সিনহা। শনিবার স্বাধীনতা দিবসে তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা রাহুল সিনহা। তিনি বলেন, ‘আগামী বছর রেড রোডে স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় পতাকা আমরাই উত্তোলন করব’।

আবারও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন সরকারকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন বিজেপি নেতারাহুল সিনহা। স্বাধীনতা দিবসেও রাজনৈতিক আক্রমণ শানালেন শাসকদল তৃণমূলকে। বর্তমান রাজ্য সরকারকে নীতিহীন বলে তোপ দেগেছেন রাহুল সিনহা।

২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলকে হারিয়ে বাংলায় বিজেপির নেতৃত্বে সরকার তৈরি হবে আত্মবিশ্বাসী রাহুল। সরকারের একের পর এক নীতিহীন কার্যকলাপ রাজ্যের মানুষকে বিপদে ঠেলে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ রাহুল সিনহার। শাসকদলকে কটাক্ষের সুরে এদিন রাহুল সিনহা বলেন, ‘নিজেদের গদির চিন্তা করা উচিত ওঁদের।’

এরই পাশাপাশি এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকারের বিরুদ্ধে আবারও তোষণের রাজনীতি করার অভিযোগ তুলেছেন রাহুল সিনহা। ভোটব্যাঙ্ক বাঁচাতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোটা পশ্চিমবঙ্গজুড়ে তোষণের রাজনীতি চালাচ্ছেন বলেও অভিযোগ তুলেছেন রাহুল সিনহা।

একদিকে শাসকদল তৃণমূলকে কাঠগড়ায় তোলার পাশাপাশি নিজের দল বিজেপির ‘নীতি-আদর্শ’-র কথাও তুলে ধরেছেন রাহুল। দেশের পরম্পরাকেই মর্যাদা দেয় বিজেপি, এমনই দাবি রাহুল সিনহার।

একইসঙ্গে করোনা যখন গোটা বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে তখন ভারত সরকার নিপুণ হাতে করোনা মোকাবিলায় সক্ষম হয়েছে বলে দাবি এই বিজেপি নেতার। কেন্দ্রীয় সরকারের সুষ্পষ্ট নীতি ও তাঁর প্রয়োগের জেরেই নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মোকাবিলা বহুলাংশে সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন রাহুল সিনহা।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা