বারাকপুর: পুলিশের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলা বিজেপি নেতৃত্বের পক্ষ থেকে শনিবার দুপুরে এদিন বীজপুর থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় কয়েক হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। উচ্চস্বরে শোনা যায় পুলিশ বিরোধী স্লোগান। বিজেপির এই বিক্ষোভ সভাবেশের নেতৃত্ব দেন সাংসদ অর্জুন সিং, বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়, বিজেপির ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলা সভানেত্রী ফাল্গুনী পাত্র।

সাংসদ অর্জুন সিং অভিযোগ করেন,”পুলিশ তৃণমূল কংগ্রেসের দলদাস হয়ে কাজ করছে । দুষ্কৃতীদের নিরাপত্তা দিচ্ছে অথচ জন প্রতিনিধিদের কোন নিরাপত্তা নেই। পুলিশ দাড়িয়ে থেকে বিজেপির পার্টি অফিস দখল করা হচ্ছে।” এদিন অর্জুন সিং বলেন, “হালিশহর পুরবোর্ড আমাদের হবে। আমরা শীঘ্রই অনাস্থা প্রস্তাব আনব পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে। ভাটপাড়া বোর্ড বলেছিলাম আমাদের হবে, এবারও বলছি হালিশহর পুরবোর্ড বিজেপির থাকবে।”

সম্প্রতি উত্তর ২৪ পরগনার কাঁচরাপাড়া, হালিশহর এলাকায় বেশ কিছু বিজেপির কার্যালয় ও বিজেপি প্রভাবিত ক্লাব তৃণমূল কর্মীরা পুলিশের সাহায্যে দখল করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ। এমনকি বীজপুর এলাকায় সম্প্রতি উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে প্রশাসনের উদাসীনতার কারনে। অসংখ্য বিজেপি কর্মীরা তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাতে মার খাচ্ছে বলে অভিযোগ।

সাংসদ অর্জুন সিংয়ের নেতৃত্বে বিজেপির এক প্রতিনিধিদল এরপর বীজপুর থানায় গিয়ে থানার আই সি কৃষ্ণেন্দু ঘোষের সঙ্গে দেখা করে তার কাছে স্মারকলিপি জমা দেয়। বীজপুর থানা ঘেরাও কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দিতে এসে অর্জুন সিং দাবি করেন, “হালিশহর পুরসভার দখল নেবে বিজেপি। পুরপ্রধান অংশুমান রায়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনে তাকে পরাজিত করা হবে । বোর্ড বিজেপির দখলে আসবে, যেভাবে ভাটপাড়া এসেছে।”