স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সম্প্রতি নিজের নির্বাচনী কেন্দ্র শ্রীরামপুরে প্রচার করছিলেন তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতা কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়৷ হঠাৎ একটি মেয়ে তাঁকে এসে মালা পরান৷ সেই ছবিটি মেয়েটির পরিবারের একজন ফেসবুকে আপলোড করেন৷ ছবিটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে৷ অমানিশ আইয়ার নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী সেই ছবিটি শেয়ার করেন৷ অভিযোগ ওই পোস্টে এসে অনেকেই কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করে৷ যাদের উৎসাহ দেন অমানিশ৷ এরপরই শেওড়াফুলি থেকে রাতে অমানিশ থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ৷

সূত্রের খবর অমানিশ বিজেপির সমর্থক৷ সোশ্যাল মিডিয়াতে থাকা বিজেপি সমর্থকদের কথায় ভোটের আগে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকেই অমানিশকে গ্রেফতার করিয়েছে রাজ্যের শাসক দল৷ এরপর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শেওড়াফুলিতে উত্তেজনা ছড়ায়৷ কিছু যুবক জিটি রোড অবরোধ করে৷

পড়ুন: রাম বাম সোশ্যাল লড়াইয়ে ‘অশুদ্ধ’ মহাভারতের চরিত্র

বিক্ষোভকারীরা শেওড়াফুলি ফাঁড়ির সামনে এসে বিক্ষোভ দেখান অমানিশকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য৷ বিক্ষোভকারীদের উপর লাঠি চার্জ করে পুলিশ৷ পাঁচজনকে গ্রেফতারও করা হয়৷ এরপর অমানিশ সহ এই ছ’জনকে শ্রীরামপুর আদালত ১৪ দিনের জেল হেফাজত দিয়েছে৷ ঘটনায় শেওডা়ফুলিতে উত্তেজনা রয়েছে৷

কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় শ্রীরামপুরের বিদায়ী তৃণমূল সাংসদ৷ এবারেও শ্রীরামপুর কেন্দ্র থেকে কল্যাণকেই টিকিট দিয়েছে তৃণমূল৷ শ্রীরামপুর লোকসভা নির্বাচনে কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিপরীতে দাঁড়িয়েছে বিজেপির যুব মোর্চার প্রেসিডেন্ট দেবজিৎ সরকার৷ বিশেষজ্ঞদের মতে এই কেন্দ্র থেকে কল্যাণকে শক্ত টক্কর দিতে চলেছে বিজেপি প্রার্থী দেবজিৎ সরকার৷ পঞ্চম দফা নির্বাচনে শ্রীরামপুর কেন্দ্রে ভোট হয়ে গিয়েছে ২৩ মে নির্ধারিত হবে কল্যাণ বাবু আবার নাকি দেবজিৎ সরকার প্রথমবার ভারতীয় সাংসদে পা রাখবেন৷