স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনাভাইরাস নিয়ে এবার দলের অন্দরে, তাই আরও সতর্ক হল রাজ্য বিজেপি। দলের সমস্ত সংগঠনকে পথে নেমে কোনও কর্মসূচি করতে নিষেধ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

যদিও বিজেপি নেতৃত্বের মধ্যে কারও করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর নেই। তবে কয়েকজন নেতা-নেত্রীর জ্বর হওয়ায় তারা বাড়িতেই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, বিজেপির রাজ্য দফতর থেকে কয়েক পা দূরেই পৌঁছে গিয়েছে মারণ ভাইরাস। মুরলিধর সেন লেনেই অফিসে নিয়ম করে প্রতিদিনই বহু নেতানেত্রী যাতায়াত করেন। কিন্তু সেখানেই বিপদের আশঙ্কা।

সূত্রের খবর, বিজেপির রাজ্য দফতরের উলটো দিকের গলি দিয়ে ঢুকে সোজা বাড়িটিতেই নাকি হানা দিয়েছে করোনা ভাইরাস। জানা গিয়েছে, ওই বাড়িটির তিনতলাতেই ২০১৬ সালে ছিল বিজেপির কল সেন্টার। ইতিমধ্যেই স্বাস্থ্য দফতরের কাছেও করোনা হানার খবর পৌঁছে গিয়েছে। ওই বাড়ির মোট সাতজন সদস্যকে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তবে তাঁদের একজনেরই নমুনা পরীক্ষায় মিলেছে করোনার প্রমাণ। বাকিরা রয়েছেন কোয়ারেন্টাইনে। তাই সংক্রমণের আশঙ্কায় বাড়িটি আপাতত সিল করে দিয়েছে পুলিশ। তবে সংক্রমণের আশঙ্কায় গেরুয়া শিবিরের সৈনিকদের যেন রাতের ঘুম উড়েছে।

এদিকে, আগামী ৬ জুলাই থেকে ফের রাজ্যজুড়ে দলের সদস্য সংগ্রহ অভিযানে নামছে বিজেপি। ওইদিন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্মদিন। সেই উপলক্ষে ৬ জুলাই ভারচুয়াল জনসভা করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ