তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: ‘করোনা আক্রান্ত’ প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সুস্থতা কামনা করে পুজো এবার দিলেন বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি রাজু বন্দোপাধ্যায়। মঙ্গলবার দলের এক সভায় যোগ দিতে এসে বাঁকুড়া শহরের ভৈরবস্থানে পুজো দিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি।

এদিন তিনি বলেন,” দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় করোনা আক্রান্ত। জন্মাষ্টমীর পূণ্যলগ্নে তাঁর ও বাঁকুড়া জেলার সমস্ত করোনা আক্রান্তদের দ্রুত সুস্থতা কামনা সহ সমগ্র জেলাবাসী যাতে সুস্থ ও শান্তিতে থাকতে পারে, মায়ের কাছে সেই প্রার্থণাই জানালাম।”

একই সঙ্গে করোনা প্রসঙ্গে শাসক তৃণমূলকেও এক হাত নিতে ছাড়েননি রাজ্য বিজেপির এই নেতা। তিনি আরও বলেন, বাঁকুড়া তো আগে গ্রীণ জোনে ছিল। ২১ জুলাই ভার্চুয়াল সভার নামে বাঁকুড়ার মোড়ে মোড়ে জমায়েত করেই এই জেলায় করোনা ছড়িয়েছে তৃণমূল। একই সঙ্গে আজকের এই পরিস্থিতির জন্য মুখ্যমন্ত্রী নিজে দায়ী বলেও অভিযোগ করেন রাজু বন্দোপাধ্যায়।

স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ার পাশাপাশি সমানে টাকা লুঠ হচ্ছে অভিযোগ করে এই দুইয়ের কারণে বাঁকুড়ার এই অবস্থা বলে তিনি দাবি করেন। রাজু বন্দোপাধ্যায়ের বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছে শাসক তৃণমূল। দলের বাঁকুড়া জেলা সভাপতি ও রাজ্যের মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা বলেন, “ঈশ্বরের প্রতি শ্রদ্ধা ভক্তি থাকবে। তবে এভাবে ‘হুঙ্কার’ আর স্লোগান দিয়ে পুজো দেওয়ার বিষয়টি বাঁকুড়ার মানুষ ভালো চোখে দেখবেন না।”

একই সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব না মেনে মাস্ক ছাড়া জমায়েত করে বিজেপিই জেলায় করোনা ছড়াচ্ছে বলে উল্টে তিনি অভিযোগ করেন। এছাড়াও কেন্দ্রের কোনও ধরণের সহযোগীতা ছাড়াই রাজ্য সরকার কোভিড পরিস্থিতির মোকাবিলা করছে বলে তিনি জানান।

ফাইল ছবি

এদিনের এই কর্মসূচীতে দলের রাজ্য সহ সভাপতি রাজু বন্দোপাধ্যায় ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাঁকুড়ার সাংসদ ডাঃ সুভাষ সরকার সহ অন্যান্য জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। অন্যদিকে, করনবা আক্রান্ত জানার পরও কার্যত কিছুটা ঝুঁকি নিয়েই প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মাথায় অস্ত্রোপচার করেন ডাক্তাররা।

এরপর ভেন্টিলেশনে রাখা হয় করোনা আক্রান্ত প্রণব মুখোপাধ্যায়কে। এই মুহূর্তে দিল্লির সেনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। ডাক্তারদের একটি দল সবসময় তাঁকে নজর রাখছেন।

প্রণব-পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, চিকিৎসায় ধীরে ধীরে সাড়া দিচ্ছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। তবে আগামী ৯৬ ঘণ্টা রাখা হবে পর্যবেক্ষণে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির পরিবারের বাকি সদস্যদের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। স্বস্তির খবর তাঁদের সবার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা