স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: মোদী বনাম মমতার সভায় জমে উঠেছে এবারের লোকসভা নির্বাচনে বাংলার প্রচার অঙ্গন। বিজেপির মোদী ঝড়কে প্রতিহত করতে বাংলার একপ্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে যাচ্ছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। প্রচারে এসে নরেন্দ্র মোদী যা যা বলছেন ও তার প্রত্যুত্তরে পাল্টা মমতা ঝড় সৃষ্টি করার চেষ্টা করছেন তৃণমূল নেত্রী।

প্রথমাবস্থায় ১০ এপ্রিল বুনিয়াদপুরে প্রচার সভায় আসার কথা ঠিক ছিল নরেন্দ্র মোদীর। এদিকে মোদীর সভার দুইদিন পরেই আগামী ১২এপ্রিল ইটাহার বালুরঘাট ও ১৯ এপ্রিল গঙ্গারামপুরে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্বাচনী সভা করার কথা ঘোষণা করেন তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূলকে চমক দিতে বালুরঘাট কেন্দ্রে একেবারে শেষ মুহূর্তে প্রচারে আসছেন মোদী। আগামী ২০ এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরে তিনি নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখবেন। একদিকে বালুরঘাট ও গঙ্গারামপুরে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সভা। আরেক দিকে বুনিয়াদপুরে নরেন্দ্র মোদীর সভা। যা নিয়ে যুযুধান দুই শিবিরেই ব্যস্ততা তুঙ্গে।

এবারের নির্বাচনে বাংলার যে কয়টি কেন্দ্রকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। তার মধ্যে অন্যতম হল বালুরঘাট কেন্দ্রটি। পাখির চোখ বালুরঘাট আসনে লক্ষ্যভেদ নিশ্চিত করতে নরেন্দ্র মোদী সহ বিজেপির একাধিক হেভিওয়েট নেতা প্রচারে আসবেন। অন্যদিকে বালুরঘাট আসনের তৃণমূল প্রার্থী গতবারের জয়ী সাংসদ অর্পিতা ঘোষের জয়কে নিশ্চিত করতে মরিয়া তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। মোদী ঝড় ও নরেন্দ্র মোদীর জনসভা বালুরঘাট কেন্দ্রের ভোটারদের কোনভাবেই প্রতিহত করতে পারবে না বলে তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি।

বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বাপি সরকারের অভিযোগ, তৃণমূল নেত্রী প্রধানমন্ত্রীর সভা ও মোদী ঝড় নিয়ে ভীষণভাবে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। তাই যেখানে যেখানে মোদীজী সভা করছেন পরবর্তীতে তিনি সেখানেই ছুটে গিয়ে ভুলভাল চিৎকার করে বাজার মাত করার চেষ্টা করছেন। এর আগে নরেন্দ্র মোদীর সভা ১০ এপ্রিল বুনিয়াদপুরে হওয়ার কথা থাকলেও পরে তা বাতিল করে দেওয়া হয়। আগামী ২০ এপ্রিল মোদীজী বুনিয়াদপুরে সভা করতে আসছেন। সেই সভায় পাঁচ লক্ষ মানুষের জমায়েত হবে বলেও তিনি দাবি করেছেন।

এদিকে তৃণমূলের সভাপতি বিপ্লব মিত্র জানিয়েছেন, ২০১৪ তে বালুরঘাট কেন্দ্রের তাদের প্রার্থী অর্পিতা ঘোষকে একলক্ষেরও বেশি ভোটে জেতানো হয়েছিল। এবারে সেই ব্যবধান আরও বাড়বে বলেও তিনি জানান। পাশাপাশি মোদী ঝড় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলায় মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জনপ্রিয়তার কাছে নরেন্দ্র মোদী তুচ্ছ। সুতরাং এই কেন্দ্রে মোদী এসেও কিছু লাভ হবে না। কারণ ১২ ও ১৯ এপ্রিল মমতা বন্দোপাধ্যায় যথাক্রমে ইটাহার বালুরঘাট ও গঙ্গারামপুরে আসবেন সভা করতে।