বেঙ্গালুরু: ২৮ বছরের এক তরুণ যুবককে লোকসভা ভোটের টিকিট দিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে বিজেপি৷ ভোটে জিতলে ইনি হবেন দেশের সর্বকনিষ্ঠ সাংসদ৷ এতদিন যা আগাথা সাংমার দখলে ছিল৷ যিনি ২৯ বছর বয়সে এনসিপির টিকিটে সাংসদ নির্বাচিত হন৷

বেঙ্গালুরু দক্ষিণ কেন্দ্রের পদ্ম শিবিরের প্রার্থী হয়েছেন কর্ণাটক হাইকোর্টের তরুণ আইনজীবি তেজস্বী সূর্য৷ এই কেন্দ্রে জিততে তাঁর উপরই বাজি রেখেছে বিজেপি৷ বেঙ্গালুরু দক্ষিণ কেন্দ্রটি থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দাঁড় করাতে চেয়েছিল কর্ণাটক বিজেপি৷ রাজ্য বিজেপি নেতারা চেয়েছিলেন বারাণসীর পাশাপাশি মোদী এই কেন্দ্র থেকেও নির্বাচনে লড়াই করুক৷ যদিও শেষ অবধি তা হয়ে ওঠেনি৷ তাই মোদীর জায়গায় আরএসএস মতধারায় বিশ্বাসী তেজস্বী সূর্যকে যোগ্য প্রার্থী বলে মনে হয়েছে কর্ণাটক বিজেপির৷

এদিকে ভোটে টিকিট পাওয়ার পর তেজস্বীর প্রথম প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘OMG’৷ ট্যুইট করে বিজেপির ‘রাইসিং স্টার’ লেখেন, বিশ্বাসই করতে পারছি না৷ বিশ্বের সবথেকে বড় গণতান্ত্রিক দেশের প্রধানমন্ত্রী ও দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দলের সভাপতি ২৮ বছরের এক যুবকের উপর আস্থা রেখেছেন৷ এটা শুধুমাত্র বিজেপি ও প্রধানমন্ত্রীর নতুন ভারতে সম্ভব৷

বেঙ্গালর দক্ষিণ কেন্দ্রটিতে প্রথম পদ্ম ফোটে ১৯৯৯ সালে৷ ওই বছর কংগ্রেসের বিকে হরিপ্রসাদকে হারিয়ে সাংসদ হন অন্তত কুমার৷ তাঁর কল্যাণে এটি বিজেপির দূর্গে পরিণত হয়৷ অন্তত কুমার গত বছর মারা যান৷ প্রথমে তাঁর বিধবা স্ত্রী তেজস্বীনিকে আসনটি দেওয়া নিয়ে চর্চা হয়৷ এমনকী কর্ণাটকের বিজেপি সভাপতি ইয়েদুরাপ্পাও তাঁর নাম সুপারিশ করেন৷ কিন্তু অনেক আলোচনার পর শিঁকে ছেঁড়ে তেজস্বীর ভাগ্যে৷ তাঁর বিপরীতে দাঁড়াচ্ছেন বিকে হরিপ্রসাদ৷