নয়াদিল্লি: সপ্তদশ লোকসভার স্পিকার নির্বাচিত হলেন ওম বিড়লা৷ সর্বসম্মতিতে স্পিকার নির্বাচিত হওয়ার পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখে ওম স্তুতি৷ সংসদে দাঁড়িয়ে মোদী বলেন, ‘‘গুজরাত ভূমিকম্প, কেদারনাথ দুর্যোগে কাজ করেছেন ওম বিড়লা৷ শীতের রাতে কোটার রাস্তায় ঘুরে কম্বল বিলি করেছেন৷ কোটায় কাউকে না খেয়ে মরতে দেননি৷ ওম বিড়লা অনুশাসন আনতে পারেন৷’’

কোটার দ্বিতীয়বারের সাংসদ ওম বিড়লা৷ কোটা দক্ষিণের তিনবারের বিধায়ক৷ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের প্রার্থী রামনারায়ণ মিনাকে ২.৭৯ লক্ষ ভোটে হারিয়ে জয়ী হন ওম বিড়লা৷

পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে যাবেন না মমতা-মায়া-কেজরি

এর আগে, লোকসভার স্পীকার হিসেবে বেশ কয়েকজনের নাম উঠে আসে৷ তার মধ্যে পি পি চৌধুরী ও এস এস আলুওয়ালিয়ার নামও ছিল৷ তবে দলের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে বৈঠকে ওম বিড়লার নাম উঠে আসে৷ উল্লেখ্য সোমবারই প্রোটেম স্পীকার হিসেবে শপথ নিয়েছেন টিকামগড়ের বিজেপি সাংসদ বীরেন্দ্র কুমার৷

চমক দিতে নরেন্দ্র মোদী বরাবরই ভালোবাসেন৷ ৫৭ বছরের এই সাংসদকে লোকসভার অধ্যক্ষ পদে মনোনীত করে চমক দিয়েছেন মোদী-শাহ৷ সেই সঙ্গে একটি বার্তাও দলের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে চেয়েছেন তারা৷ সেটি হল যারা লো প্রোফাইল বজায় রেখে নিবিড় ভাবে সংগঠনের কাজ যারা চালিয়ে যাবে তাদের গুরুত্বপূর্ণ পদ দিয়ে পুরস্কৃত করা হবে৷ বিজেপির অন্দরে মোদী-শাহ ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত ওম বিড়লা৷ ঢাকঢোল না পিটিয়ে সংগঠনের কাজ করতে তিনি স্বচ্ছন্দ৷