বারাসত: আবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বেনজির আক্রমণ বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে বাংলায় ‘গব্বর সিং’-এর শাসন চলছে বলে কটাক্ষ করেন বিজেপির এই সাংসদ। রাজ্য সরকারের মদতে বাংলার বিভিন্ন এলাকায় তৃণমূলের কর্মীরা সন্ত্রাস চালাচ্ছেন বলে অভিযোগ এই বিজেপি নেতার। বাংলায় তৃণমূল সরকারের পতন হবে বলেও মন্তব্য করেছেন সৌমিত্র খাঁ।

বিজেপির পাখির চোখ আগামী বছরের বিধানসভা ভোট। গোটা রাজ্য চষে ফেলছেন বিজেপির নেতারা। দিন যত এগোচ্ছে ততই শাসক তৃণমূলের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে চলেছে গেরুয়া শিবির। দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে শুরু করে সায়ন্তন বসু-সহ একাধিক বিজেপি নেতা বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকারের কড়া সমালোচনা করছেন।

করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের পদক্ষেপ প্রসঙ্গে শুরু থেকেই সমালোচনা করে আসছেন বিজেপি নেতারা। এমনকী বাংলায় শাসকদলের মদতে করোনার সংক্রমণের তথ্য গোপন করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলে বিজেপি।

রাজ্য সরকারকে বিঁধতে এবার আসরে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। তৃণমূল নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘শোলে সিনেমায় দেখা গিয়েছিল ডাকাত গব্বর সিং গুলি করত, আর বলত গুলি খা। বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারও তাই করছে।’

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি প্রশাসনিক আধিকারিকদের একাংশেরও কড়া সমালোচনা করেছেন এই বিজেপি সাংসদ। তিনি বলেন, ‘জমিদারি রাজত্বে যেমন পেয়াদা ছিল তেমন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজত্বেও পেয়াদার শাসন চলছে বাংলায়। বিডিওরা এখানে পেয়াদার ভূমিকা পালন করছেন।’

এরই পাশাপাশি আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ বিলি নিয়েও রাজ্যে তৃণমূলের মদতে চরম দুর্নীতি হয়েছে বলে অভিযোগ সৌমিত্র খাঁয়ের। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘করোনা ও আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে না। ত্রাণ চাইতে গেলে উল্টে কমিশন চাওয়া হচ্ছে।’

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV