লখনউ: রিজকাণ্ডের ছায়া এবার উত্তরপ্রদেশে৷ দলিতকে বিয়ে করায় বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে অত্যাচারের অভিযোগ আনলেন তারই মেয়ে৷ ভাইরাল ভিডিওতে বিধায়কের কন্যার দাবি, দম্পতির জীবন অত্যন্ত বিপদে নিচু জাতির ছেলেকে বিয়ে করার জন্য৷

রাজেশ মিশ্র৷ যোগী রাজ্যের বিথারি চেইনপুরের বিজেপি বিধায়ক৷ এহেন দোর্দদণ্ডপ্রতাপ বাবার মেয়েই ঘোর সঙ্কটে৷ বছর ২৩-এর সাক্ষী মিশ্র বুধবার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছাড়ে৷ ওই ভিডিওতেই তাকে বলতে শোনা যায়, ‘২৯ বছরের দলিত যুবক অজিতেষকে ভালোবেসে সে গত বৃহস্পতিবার বিয়ে করেছে৷’ তবে তা মেনে নিতে পারেননি সাক্ষীর বিধায়ক বাবা৷

আরও পড়ুন: কাজই পরিচয়: সাহসিকতার জন্য দিঘার ৪ নুলিয়াকে পুরস্কার পুলিশের

মেয়ের আবেদন, তাদের যেন নিজেদের পছন্নসই জীবন অতিবাহিত করতে দেওয়া হয়৷ পরে হুমকির সুরেই সাক্ষী জানিয়েছে খারপ ঘটনার কিছু ঘটলে তার দায় বর্তাবে রাজেশ মিশ্রের উপরই৷ এক্ষেত্রে নিজের বাবাকে কোন মতেই রেহাই দেবে না সে৷

আরও পড়ুন: পল্লবীর জোশীর ক্রেডিট কার্ডের তথ্য হাতিয়ে অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও টাকা

সাহায্য চেয়ে সাক্ষী দ্বারস্থ হয়েছেন অন্যান্য বিধায়কদের৷ তালিকায় নাম রয়েছে সাংসদেরও৷ বাড়েলির সাংসদ ও বিধায়কের কাছে সাক্ষীর আবেদন, তাকে ও তার স্বামীকে হেনস্থা করছেন বিধায়ক রাজেশ মিশ্র৷ ঘটনাচক্রে যিনি সাক্ষীর বাবা৷ এই অবস্থায় বিধায়ক বাবাকে যেন কেউ সাহায্য না করে সেটি দেখার৷ তবে এনিয়ে কিছু বলতে রাজি নন বাড়েলির সাংসদ ও বিধায়ক৷

খবর পেয়েই পদক্ষেপ করেছে পুলিশ৷ ডেপুটি সুপার আর কে পান্ডে জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে৷ ভাইরাল ভিডিও ফুটেজ দেখে এসএসপিকে নব দম্পতির নিরাপত্তা বৃদ্ধির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ তবে ডিআইজি-র তরফে জানানো হয়েছে, বিথারি চেইনপুরের বিজেপি বিধায়কের কন্যা বর্তমানে কোথায় রয়েছে তা জানা যায়নি৷ এই অবস্থায় তাই নিরাপত্তার কথা বলা হলেও বাস্তবে তা করা সম্ভব হচ্ছে না৷