জয়পুর:  নোট বাতিল নিয়ে সরগরম রাজধানী। মোদীর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে একজোট বিরোধীরা। চলছে অবস্থান-বিক্ষোভ। কিন্তু বিরোধীরা যাই বলুক না কেন সমীক্ষা বলছে, গোটা দেশের ৮৫ শতাংশ মানুষ রয়েছে মোদীর পাশেই। ফলে সবকিছুই ঠিকঠাক ভাবেই এগোচ্ছিল। কিন্তু শেষবেলায় এসে মোদীর সাজানো বাগানে জল ঢেলে দিলেন  রাজস্থানের বিজেপি বিধায়ক ভবানী সিংহ রাজাওয়াত। রাজস্থানের এই বিজেপি বিধায়কের সবচেয়ে বিস্ফোরক অভিযোগ, নোট বাতিলকাণ্ডের আগাম খবর ছিল অম্বানি এবং আদানিদের কাছে। ৫০০ টাকা এবং ১০০০ টাকার পুরনো নোট যে বাতিল হচ্ছে তা এই শিল্পপতিরা জানতেন। এটা যে কালো টাকার মোকাবিলায় অভিযান, সে তথ্যও নাকি এঁদের কাছে ছিল। তাই আগে থেকেই নিজেদের কালো টাকাকে সাদা করে নেওয়ার রাস্তা নাকি বার করে নিয়েছিলেন অম্বানি ও আদানিরা। ফলে বিজেপি বিধায়কের চাঞ্চল্যকর এই স্বীকারোক্তির পরেই মাথায় বাজ ভেঙে পড়েছে বিজেপি, সেকথা বলার আর সময় রাখে না। শুধু তাই নয়, তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক সমালোচনাও।

এহেন বিস্ফোরণ ভবানী সিংহ রাজাওয়াত কিন্তু প্রকাশ্যে বলেননি। সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ব্যক্তিগত আলাপ-আলোচনায় ‘অফ দ্য ক্যামেরা’ বলেছিলেন। কেউ এই কথোপকথনের ভিডিও রেকর্ডিং করে তা ইন্টারনেটে আপলোড করে দেন। গোটা ঘটনাতেই রীতিমত ক্ষিপ্ত ভবানী সিংহ। তাঁর অভিযোগ, ব্যক্তিগত আলাপচারিতায় ‘অফ দ্য ক্যাম’ যখন কথা হচ্ছে, তার এমন ভিডিও রেকর্ডিং অনৈতিক কাজ এবং যেভাবে তা সর্বসমক্ষে প্রকাশ করা হয়েছে তা গর্হিত ও অন্যায়। সেইসঙ্গে তাঁর দাবি, ভিডিও-তে তাঁকে যেসব কথা বলতে দেখা গিয়েছে, আদৌ তা তিনি বলেননি। তাহলে, ভিডিও-তে ভবানী সিংহের অডিও কী কারচুপি? তাতে অবশ্য নিরুত্তোর থেকেছেন ভবানী সিংহ।