নয়াদিল্লি: তখনও নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়নি৷ তার আগে থেকেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির নির্বাচনী প্রচার বিজ্ঞাপনে ভরে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া৷ আর এই বিজ্ঞাপনগুলির পিছনে জলের মতো টাকা খরচ করতেও দু’বার ভাবেনি কোনও দলই৷ হিসেব বলছে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে গুগল প্ল্যাটফর্মে ৮৩১টি বিজ্ঞাপনের জন্য ৩৭ কোটি টাকা খরচ করেছে রাজনৈতিক দলগুলি৷

বিজ্ঞাপনী প্রচারে অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলির থেকে কয়েক কদম এগিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টি৷ বৃহস্পতিবার বৃহৎ সার্চ ইঞ্জিন সংস্থা গুগল ইন্ডিয়ান ট্রান্সপ্যারেন্সি রিপোর্ট বার করে৷ সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, গুগল বিজ্ঞাপনের বাজারের ৩২ শতাংশ গেরুয়া শিবিরের দখলে৷ বিজেপির এখনও অবধি ৫৫৪টি বিজ্ঞাপন দেখা গিয়েছে গুগলে৷ এর জন্য খরচ হয়েছে ১ কোটি ২১ লক্ষ টাকা৷

বিজ্ঞাপন যুদ্ধে বিজেপির থেকে অনেক পিছিয়ে কংগ্রেস৷ তাদের মাত্র ১৪টি বিজ্ঞাপন সামনে এসেছে৷ খরচ হয়েছে ৫৪ হাজার ১০০ টাকা৷ নির্বাচনী প্রচার বিজ্ঞাপনের তালিকা তৈরি করলে দেখা যাবে কংগ্রেস ৬ নম্বর স্থানে রয়েছে৷

তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে জগন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি৷ তাদের ১০৭টি গুগল বিজ্ঞাপন রয়েছে৷ খরচ হয়েছে ১কোটি ৪ লক্ষ টাকা৷ তালিকার তৃতীয়, চতুর্থ স্থানও আরও এক দক্ষিণ দলের কবজায়৷ ৫৩টি বিজ্ঞাপনের জন্য ৮৫ লক্ষ টাকা খরচ করে তৃতীয় স্থান দখল করেছে তেলেগু দেশম পার্টি৷ চতুর্থ স্থানে তারাই আছে৷ ঘটনা হল চন্দ্রবাবুর দল দুটি বিজ্ঞাপনী সংস্থাকে দায়িত্ব দিয়েছে৷ প্রথম বিজ্ঞাপনী সংস্থা হল প্রামান্য স্ট্র্যাটেজি কনসাল্টিং প্রাইভেট লিমিটেড৷ দ্বিতীয়টি হল ডিজিট্যাল কনসালটিং প্রাইভেট লিমিটেড৷ ডিজিট্যাল কনসালটিং চন্দ্রবাবুর হয়ে ৩৬টি বিজ্ঞাপন তৈরি করেছে৷ খরচ হয়েছে ৬৩ লক্ষ টাকা৷

অন্ধ্রপ্রদেশের পর তেলেঙ্গানা নির্বাচনী বিজ্ঞাপন প্রচারে ৭২ লক্ষ টাকা খরচ করেছে৷ অপরদিকে উত্তরপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্র সরকার এই খাতে খরচ করেছে ১৮ লক্ষ ও ১৭ লক্ষ টাকা৷