শ্রীনগর: আবারও রক্তাক্ত ভূস্বর্গ। উপত্যকায় ফের জঙ্গি নিশানায় বিজেপি নেতা। বৃহস্পতিবার সকালে কুলগামে বাড়ির সামনে গুলি করে খুন করা হয় বিজেপির পঞ্চায়েত প্রধানকে। এদিন সকালে কুলগামের ভেসু গ্রামে বিজেপি নেতা সাজাদ আহমেদ খান্ডেকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে জঙ্গিরা। হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় ওই বিজেপি নেতাকে।

বুধবারই জম্মু কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের বর্ষপূর্তি হয়েছে। ঠিক তার পরের দিনই ফের জঙ্গি হামলা উপত্যকায়। কয়েকমাস ধরেই কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় বিজেপি নেতা-কর্মীদের উপর হামলা চালাচ্ছে জঙ্গিরা।

সেই কারণেই উপত্যকার বিজেপি নেতাদের নিরাপদ আশ্রয়ে রাখার ব্যবস্থা হয়। কুলগামেও বিজেপি নেতাদের জন্য একটি নিরাপদ আশ্রয় শিবির খোলা হয়েছিল। সেখানেই দলের অন্য নেতাদের সঙ্গে আশ্রয় নিয়েছিলেন বিজেপি নেতা সাজাদ আহমেদ খান্ডে।

বৃহস্পতিবার সকালে তিনি বাড়ি ফিরছিলেন। সেই খবর আগেভাগেই পেয়ে যায় জঙ্গিরা। এদিন সকালে বাড়ির কাছে পৌঁছতেই জঙ্গিরা ঘিরে ফেলে সাজাদকে। বিজেপি নেতাকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে জঙ্গিরা।

রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই বিজেপি নেতা। এরপরই ঘটনাস্থলে থেকে চম্পট দেয় জঙ্গিরা। স্থানীয় বাসিন্দারা রক্তাক্ত বিজেপি নেতাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিৎসকরা বিজেপির ওই পঞ্চায়েত প্রধানকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠনই নৃশংষ এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে অভিযুক্তদের খুঁজে বের করার চেষ্টায় জম্মু কাশ্মীর পুলিশ। সোর্স মারফত খবর লাগিয়ে অপরাধীদের সন্ধান চালানো হচ্ছে। গোটা এলাকা ঘিরে চলছে তল্লাশি অভিযান।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা