স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: ভোরের আলো ফোটার আগেই তিনি নিয়মিত প্রাতঃভ্রমণে বেড়িয়ে পড়েন। এমনকি সেরে নেন প্রাণায়ামও। আবহাওয়া অনুকূল থাকলে সাংগঠনিক ব্যস্ততার মাঝেও নিত্যদিনের এই নিয়মের ব্যতিক্রম হয় না। লোকসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের জেতানোর দায়িত্ব পালনের মাঝেও শুক্রবার একইসঙ্গে প্রাতঃভ্রমণ ও সেই সঙ্গে প্রচার সারলেন গেরুয়া ব্রিগেডের বঙ্গ রেজিমেন্টের সেনাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন বালুরঘাটে ভোর সাড়ে চারটেয় প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে পড়েন তিনি। সঙ্গী জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার ও দেহরক্ষীরা। এদিন বালুরঘাটের বাসস্ট্যান্ড এলাকার লীলা লজ থেকে পায়ে হেঁটে সোজা যান আত্রেয়ী নদীর ওপারে চকভৃগু এলাকায়। সেখান থেকে শহরের প্রাচ্যভারতী এলাকা হয়ে সাড়ে তিননম্বর মোড় ও বিশ্বাসপাড়া মোড় হয়ে ফের লজে ফেরেন।

প্রায় ঘন্টা তিনেকের এই প্রাতঃভ্রমণে তিনি একাধিক জায়গায় বিভিন্ন প্রভাতী আড্ডায় অংশ নেন। এমনকি বিভিন্ন মোড়ে সাধারণের অনুরোধে চায়ের আড্ডাতেও যোগ দেন তিনি।

এদিন সাড়ে তিননম্বর মোড়ে চায়ের আড্ডায় দিলীপ ঘোষ জানান যে, শুধু নিজের কেন্দ্রেই নয়, রাজ্যের সবকটি আসনেই এবারে বিজেপি উল্লেখযোগ্য ফল করবে। ৪২টিতে শুধু ২৩ টি নয় আরও বেশি আসন এবার বিজেপির দখলে আসছে বলেও আশা করছেন তিনি৷