প্রতীতি ঘোষ, বারাসত : করোনা আবহে লকডাউন উপেক্ষা করে ডিজে বাজিয়ে রামযাত্রা র‍্যালি করার দায়ে গ্রেফতার হলেন এক বিজেপি নেতা। মাঝ রাস্তায় পুলিশ পৌঁছে বিজেপি কর্মীদের ওই র‍্যালি বন্ধ করে দেয়। ডিজে বক্সের কানেকশন বন্ধ করে সেই বক্স থানায় তুলে নিয়ে আসে পুলিশ ।

বহু প্রতীক্ষিত রাম মন্দিরের শিলান্যাস হয়ে গেল অযোধ্যায়। আর এই শিলান্যাসকে কেন্দ্র করে যতেষ্ট উদ্দীপনা দেখা গেল বিজেপি কর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে। ব্যাতিক্রম নেই বাংলাও। এদিন উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের বিজিপি কর্মীদের মধ্যেও ব্যপক উচ্ছ্বাস দেখা গেল। রাজ্য সরকার বুধবার লকডাউন জারি করেছিল।

কিন্তু রাম মন্দিরের শিলান্যাস হওয়ার আনন্দ প্রকাশ করতে গিয়ে রাজ্য সরকারের ডাকা লকডাউন আইন লঙ্ঘন করে ডিজে বাজিয়ে রাম যাত্রা করছিলেন বারাসাতের বিজেপি কর্মীরা । সেই মিছিল মাঝ রাস্তায় আটকে গ্রেফতার করা হয় বিজেপি কর্মী দেবাশীষ চন্দকে।

উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতের চাপাডালির মোড়ের কাছে শতদল সংঘ সংলগ্ন এলাকায় লকডাউন উপেক্ষা করে রাম যাত্রা রেলি করার অপরাধে গ্রেফতার হয় দেবাশীষ চন্দ নামে ওই বিজেপি কর্মী। আটক ডিজে বক্স সহ জেনারেটর এবং রেলিতে ব্যবহারে ব্যবহৃত ট্যাবলো।

বুধবার গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বারাসত থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শোভাযাত্রা বন্ধ করে দেয় এবং শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহণকারীদের হটিয়ে দেয়।

এই ঘটনায় বিজেপির কর্মীদের আভিযোগ, “তৃনমূল কংগ্রেসে সরকার পরিকল্পিত ভাবে আজ বুধবার ৫ আগষ্ট লক ডাউন করেছে এরাজ্যে রাম চন্দ্রের পূজো আটকাতে । কিন্তূ বিজেপির কর্মী সমর্থক ও নেতৃত্ব তা উপেক্ষা করে এগিয়ে এসেছে।”

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা