সত্যজিৎ বিশ্বাস

নিবেদিতা দে, কৃষ্ণনগর: একের পর এক চাঞ্চল্যকর দাবি উঠে আসছে কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক খুনের ঘটনায়৷ রবিবার শক্তিনগর হাসপাতালে যান পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷

সেখানে তিনি বলেন ‘ভাল সংগঠক ছিলেন সত্যজিত বিশ্বাস৷ পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে তাঁকে৷ এলাকা দখলের লড়াইকে কেন্দ্র করেই এই খুন৷ যে অনুষ্ঠানে তাঁকে খুন করা হয়, সেখানে প্রায় ৮-১০ বার লোডশেডিং হয়েছিল৷ এটা বিজেপির কাজ৷’

নদিয়া জেলা সভাপতি গৌরি দত্ত সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ‘সত্যজিত নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে চলা ফেরা পছন্দ করত না৷ ও ছিল কেয়ারলেস, দাপুটে নেতা৷ অনুষ্ঠানের আগে ছুটি দিয়ে দিয়েছিল ওর নিরাপত্তরক্ষীকে৷’

আরও পড়ুন : ‘মুকুলই খুন করিয়েছে, এর শেষ দেখে ছাড়ব’

বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘এই খুনের নিন্দা করছি৷ সিবিআই তদন্ত হলে আপত্তি নেই৷ দেখা যাবে তৃণমূলের লোকই খুন করেছে৷’’

বিধায়ক সত্যজিত বিশ্বাস খুনের ঘটনায় বিজেপি নেতা মুকুল রায় সহ মোট ৪জনের নামে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে৷ তবে তৃণমূলের তোলা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি৷ জানিয়েছে, প্রয়োজনে সিবিআই তদন্ত করুক৷ তাহলে সত্যিটা বেরিয়ে আসবে৷ তৃণমূলের নিজেদের মধ্যে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে এই খুন৷ এর আগে জয়নগরে বিধায়কের উপর হামলার ঘটনার সময় বিজেপিকে জড়ানো হয়েছিল৷