স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: টালিগঞ্জ পাড়ায় তৃণমূল কংগ্রেসের পাল্টা সংগঠন খুলে শিরোনাম এসেছিল বিজেপি প্রভাবিত সংগঠন – বঙ্গীয় চলচ্চিত্র পরিষদ। রাজ্য বিজেপির সহ সভাপতি বিশ্বপ্রিয় রায় চৌধুরি, মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পণ্ডা এবং চলচ্চিত্র পরিচালক মিলন ভৌমিক এই সংগঠনে রয়েছেন। তবে শুধু সিনে-জগতেই আটকে থাকতে চায় না পরিষদ। চিৎপুর যাত্রা পাড়াতেও নিজেদের দফতর ইতিমধ্যেই খুলেছে পরিষদ। যাত্রা পাড়ার শিল্পী, কলাকুশলীরা পরিষদে যোগদান করতেও শুরু করেছেন। বৃহস্পতিবার যাত্রা পাড়ার কলাকুশলীরা ছাড়াও ছিলেন ‘ইভেন্ট’ উপস্থাপকরা। বিশ্বপ্রিয় রায় চৌধুরির সঙ্গে এই প্রতিনিধিরা দেখা করে তাঁদের সমস্যার কথা জানান।

মূল দাবী ছিল

১. বিভিন্ন সরকারী প্রকল্পের অাওতাভুক্ত করতে হবে।

২. সদস্যদের সেন্ট্রাল কার্ডের সুবিধা প্রদান করতে হবে|

৩. সংগঠনের সদস্যদের স্বাস্হ্যবীমাসহ বিভিন্ন সুবিধা প্রদান করতে হবে|

৪. সরকারী বিনোদন, যে কোনো অনুষ্ঠান, যে কোনো ধরনের ট্রেড মেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং সরকারী যে কোনো দপ্তরের ইভেন্ট ট্রেড মেলার টেন্ডার নাম নথিভুক্ত করতে হবে|

৫. রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকার “উভয়কেই” যে সমস্ত অনুষ্ঠানে শিল্পীরা সিনিয়র সিটিজেনশীপ, তাদের একটা মাসিক ভাতা অবশ্যই দিতে হবে|

যাত্রা পাড়ার দাবি, পশ্চিমবঙ্গ সরকার জলসা উৎসব করার দাবী প্রদান করুন কেন্দ্রে। রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের সহযোগীতা দ্বারা।

৭. নতুন শিল্পীদের বাধ্যতামূলক ভাবে সিনেমায় অন্তত ১টি গান গাওয়ার সুযোগ এবং নৃত্য শিল্পীদের সুযোগ অবশ্যই দিতে হবে।