Bjp is planing to move their rath through shirakole area
ফাইল ছবি।

কলকাতা: রবিবার কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে মোদীর সভায় রাজ্যের সব প্রান্ত থেকে কর্মী-সমর্থকদের আনার চেষ্টা বিজেপির। ব্রিগেডের মাঠ কানায়-কানায় পূর্ণ করতে বিজেপি নেতৃত্বের চেষ্টায় খামতি নেই। সেই কারণেই এবার তিনটি ট্রেন ভাড়া নিচ্ছে গেরুয়া শিবির। ইতিমধ্যেই রেল মন্ত্রকের কাছে তিনটি বিশেষ ট্রেন ভাড়া নেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছে পদ্ম শিবির।

একুশের ভোটের আগে রাজ্য রাজনীতি সরগরম। সেই মেজাজে তুফান তুলে রবিবারের দুপুরে ফের কলকাতায় মোদী। ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে দলের নির্বাচনী সভায় প্রধান বক্তা নমো। প্রধানমন্ত্রীর সভায় ব্রিগেডের মাঠ ভরাতে তৎপর রাজ্য় বিজেপি।

গোটা বাংলা থেকে কর্মী-সমর্থকদের এনে ব্রিগেড ভরানোর চেষ্টা। রেলের থেকে তিনচি বিশেষ ট্রেন ভাড়া করছে বিজেপি। জানা গিয়েছে, আলিপুরদুয়ার, মালদহ জেলার কর্মীর সমর্থকদের ব্রিগেডের মাঠে আনতে তিনটি চ্রেম ভাড়া নিচ্ছে বিজেপি। জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে নির্ধারিত স্টেশনগুলি থেকে ছেড়ে রবিবার ভোরে-সকালে ট্রেনগুলি পৌঁছবে শিয়ালদহ ও হাওড়া স্টেশনে।

হাওড়া ও শিয়ালদহ থেকে কর্মী-সমর্থকরা মিছিল করে গিয়ে পৌঁছবেন ব্রিগেডের মাঠে। তাঁদের জন্য থাকবে গাড়ির ব্যবস্থাও। মোটের উপর গত রবিবার বামেদের ডাকা ব্রিগেডের সভা ছিল কানায়-কানা পূর্ণ। ভোটের মুখে বাম-ব্রিগেডে জনপ্লাবন দেখা দেওয়ায় ভ্রূ কুঁচকেছে অনেক দলের।

সেই কারণেই এবার ব্রিগেড ভরানোর চ্যালেঞ্জ গেরুয়া নেতাদের। চেষ্টায় কোনও খামতি রাখতে চান না দিলীপ, কৈলাশ, মুকুল, শুভেন্দুরা। প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখা হচ্ছে জেলা নেতাদের সঙ্গে। কোন জেলা থেকে কত কর্মী-সমর্থক আনতে হবে আগে থেকেই তার টার্গেট ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, একুশের ভোটে দলের প্রার্থী তালিকা নিয়ে আলোচনা প্রায় সাড়া বিজেপির। সম্ভবত রবিবার সন্ধেয় প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দিতে পারে বিজেপি। ওই দিন দুপুরে কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে নরেন্দ্র মোদীর সভার পরেই প্রার্থী তালিক ঘোষণা করে দিতে পারে রাজ্য বিজেপি। যদিও এব্যাপারে দলের তরফে স্পষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি।

শুক্রবারই সবার আগে রাজ্যের প্রায় সব আসনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে চাপে ফেলার কৌশল তৃণমূলের। আসন্ন বিধানসভা ভোটে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে লড়ছেন। তাঁর পুরনো আসন ভবানীপুরে প্রার্থী হয়েছেন দলের বর্ষীয়ান নেতা শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও তৃমমূলের এবারের প্রার্থী তালিকায় তারকাদের ছড়াছড়ি। তারকাদের স্টারডম কাজে লাগিয়ে নির্বাচনী বৈতরণী পেরনোর চেষ্টায় রাজ্যের শাসকদল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।