দেবময় ঘোষ, কলকাতা: বুথ ফেরত সমীক্ষা প্রকাশিত হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রীতিমতো ‘আল্টিমেটাম’ দিয়ে রেখেছে রাজ্য বিজেপি। বিজেপির বার্তা, দিদি বুথ ফেরত সমীক্ষাকে অস্বীকার করে নিজের বিশাল হারকেই মেনে নিচ্ছেন।

অন্যদিকে, সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র ভোটারদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন, ২০০৪ সাল থেকেই এই ধরণের সমীক্ষা হয়ে আসছে। বুথ ফেরত সমীক্ষায় বিজেপি কখনও হারে না। ফল প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

আরও পড়ুন: জয়ের গন্ধ পেয়েই শরিকদের নিয়ে বৈঠকে অমিত শাহ

রবিবার সপ্তম তথা শেষ দফার নির্বাচন শেষ হয়েছে। ওইদিন বিকাল থেকেই এক্সিট পোল বা বুথ ফেরত সমীক্ষার ফলাফলগুলি আসতে শুরু করে। সার্বিকভাবে কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী সরকারের ফিরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছে সমীক্ষাগুলি।

পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে বেশিরভাগ সমীক্ষাই বিজেপির উত্থান এবং তৃণমূলের মহাপতনের ইঙ্গিত দিয়েছে। সমীক্ষার ফলাফল সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, এই বুথ ফেরত সমীক্ষা ইভিএম – কে এদিক-ওদিক করা বা সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা। এই গুজবে বিশ্বাস করা উচিত নয়।

সূর্যকান্ত আবার প্রানপনে বোঝানোর চেষ্টায় আছেন, “বুথ ফেরত সমীক্ষা দেখে বিভ্রান্ত হবেন না। গত ৫টি লোকসভা নির্বাচনে সমীক্ষার সঙ্গে প্রকৃত ফলাফল কখনও মেলানো যায়নি। এই ধরনের সমীক্ষায় ২০০৪ থেকে বিজেপি কখনো হারেনি।” তথ্যও দিয়েছেন তিনি। টুইটারে পোস্ট করেছেন ১৯৯৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত এক্সিট পোলের যাবতীয় তথ্য।

আরও পড়ুন: Exit Poll-এর রিকাউন্টিংয়ের দাবি মমতার, ট্যুইট বাবুলের

রাজনৈতিক মহলে বা সংবাদমাধ্যমে রবিবার থেকেই প্রবল আলোচনার বিষয় বিজেপির ভোটের উৎস। রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য, বাম ভোট কমছে। বাম ভোট কমে ৫-৮ শতাংশ হতে পারে। বাম ভোট যেতে পারে বিজেপিতে। অন্যদিকে, শাসক তৃণমূলের অসহিষ্ণু আঞ্চলিক নেতাদের জন্য তৃণমূলেরও একটি বড় অংশের ভোট বিজেপিতে যেতে পারে আশঙ্কা করছেন নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে মমতাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বিজেপি বলেছে, দিদি আপনার দিন গোনা শুরু হয়ে গিয়েছে। সোনার বাংলা গড়বে বিজেপি। সূর্যকান্ত আবার ব্যস্ত পরিসংখ্যান নিয়েই।