তৃণমূলের সমর্থনে রাজ্যে পাকাপাকিভাবে সরকার গড়ল বিজেপি

ইম্ফলঃ   অবশেষে আস্থা ভোটে জয়ী হলেন মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী বীরেন সিং।  মণিপুর বিধানসভার ৬০টি আসনের আজ সোমবার ৩২জন বিধায়কের সমর্থন পেয়ে যান মুখ্যমন্ত্রী।  কারণ, আজ বিজেপি সরকারকে সমর্থন করেন একমাত্র তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্র সিং।  মোট ২১ জন বিজেপি বিধায়ক তো রয়েছেই শাসকদলের।  তিনি এছাড়াও বিজেপিকে সরকার গঠনের ভিত শক্তপক্ত করতে সমর্থন করেন ন্যাশনাল পিপলস পার্টি ও নাগা পিপলস ফ্রন্টের ৪ জন করে বিধায়ক।  এছাড়াও সমর্থন দিয়েছেন লোক জনশক্তি পার্টি ও তৃণমূল কংগ্রেসের একজন করে বিধায়ক এবং কংগ্রেস ছেড়ে বেরিয়ে আসা এক বিধায়ক।  বিজেপির ইয়ুমনাম খেমচাঁদ সিং স্পিকার হিসেবে শপথ নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, মণিপুর বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয় বিজেপির।  কংগ্রেস পায় ২৮টি আসন এবং বিজেপি পায় ২১টি আসন। কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হয় কংগ্রেস।  কিন্তু বিজেপির দিকে পাল্লাভারী হলে সরকার গঠনের দাবি জানায় তাঁরা।  আজ বিধানসভার ৬০টি আসনের আজ ৩২ জন বিধায়কেরই সমর্থন পেয়ে যান মুখ্যমন্ত্রী বীরেন সিং।

যদিও বিজেপি সরকারকে তৃণমূলের সমর্থন করা নিয়ে উঠছে নানা বিতর্ক।  মুকুল রায় এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন,  তৃণমূল নেতৃত্বের অনুমতি ছাড়াই দলের একমাত্র বিধায়ক রবীন্দ্র সিং বিজেপি সরকারকে সমর্থন করেছেন। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রবীন্দ্র সিং।  তিনি পরিষ্কার জানিয়েছেন, দলীয় নেতৃত্বের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করেছেন।