দেরাদুন: সামনেই লোকসভা নির্বাচন৷ আর এই নির্বাচনের অন্যতম ইস্যু হতে চলেছে রামমন্দির৷ এতদিন রামমন্দির নির্মাণের ধ্বনি শোনা যেত বিজেপি নেতাদের মুখে৷ সেই ধ্বনি প্রতিফলিত হল কংগ্রেসের গলায়৷ রামমন্দির নিয়ে বিজেপিকে বিঁধে রাহুলের দলের প্রতিক্রিয়া, একমাত্র কংগ্রেসই পারে রামমন্দির নির্মাণ করতে৷
উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও প্রবীণ কংগ্রেস নেতা হরিশ রাওয়াত জানান, বিজেপি রামমন্দির তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে রামের প্রতি শুধু অশ্রদ্ধা দেখিয়ে গিয়েছে৷ একমাত্র কংগ্রেস পারে রামের হৃত সম্মান ফিরিয়ে দিতে৷ কংগ্রেস যখন ক্ষমতায় আসবে তখনই তৈরি হবে রামমন্দির৷

এদিকে এদিনই রামমন্দির তৈরির সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে আরএসএস৷ শুক্রবার বিজেপির ধাত্রী সংগঠন সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ২০২৫ সালের মধ্যে রামমন্দির তৈরির কাজ শেষ হওয়া চাই৷ আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক ভাইয়াজী যোশী এদিন বলেন, ‘‘অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ হোক এটাই আমাদের আকাঙ্খা৷ এবং ২০২৫ সালের মধ্যে মন্দির তৈরির কাজ শেষ করতে হবে৷’’ একটি জনসভায় তিনি আরও দাবি করে জানান, মন্দির তৈরি হলে দ্রুত গতিতে দেশের উন্নয়ন হবে৷

লোকসভার আগে রামমন্দির ইস্যুতে উত্তাল জাতীয় রাজনীতি। বিভিন্ন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের দাবি, যেভাবেই হোক অযোধ্যায় রামমন্দির তৈরি হোক৷ একই দাবি বিজেপির অতি কট্টরবাদীদেরও৷ অবিলন্বে মন্দিরের কাজ শুরুতে অর্ডিন্যান্স জারিরও দাবি তুলেছে তারা৷ কিন্তু অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি মামলাটি বর্তমানে আদালতের বিচারাধীন৷ তাই শীর্ষ আদালত সেই মামলায় রায়দান না করা পর্যন্ত, সরকার কোনও পদক্ষেপ করবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷