স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: সরকারি হাসপাতালের দুরবস্থার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া সমালোচনা করলেন বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া৷ রবিবার বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভরতি গুলিবিদ্ধ দলীয় নেতাকে দেখতে গিয়েছিলেন তিনি৷ সেখানেই হাসপাতালের হাল নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি৷

শনিবার ভাতার থানার আড়া গ্রামের বাসিন্দা বিজেপির মণ্ডল সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণকালী সামন্ত গুলিবিদ্ধ হন৷ওদিন রাতেই সেই আহত বিজেপি নেতাকে প্রথমে ভাতার হাসপাতাল এবং পরে তাঁকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভরতি করা হয়।কৃষ্ণকালী জানিয়েছেন, শনিবার রাতে তিনি বাড়ির বারান্দায় বসেছিলেন। সেই সময় একটি মোটরবাইকে তিনজন আসেন এবং তাঁকে লক্ষ্য করে দু রাউণ্ড গুলি ছোঁড়ে। একটি গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও অন্য গুলিটি তাঁর বাঁ হাতে লাগে৷ এই ঘটনায় তৃণমূলকেই দায়ী করেছে বিজেপি৷

রবিবার কৃষ্ণকালী সমান্তকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন আলুওয়ালিয়া। সেখানে ওই গুলিবিদ্ধ নেতা মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেই ক্ষেপে যান তিনি৷হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে বলেন, উনি তো রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও। নির্মল বাংলার পুরষ্কার পেয়েছেন বলে উনি আনন্দ করেন অথচ হাসপাতালের এই হাল৷ একজন আশঙ্কাজনক রোগীকে মেঝেতেই বসিয়ে রাখা হয়েছে। গোটা হাসপাতালে এত নোংরা থাকার পরও উনি নির্মল বাংলার পুরষ্কার পেয়ে কীভাবে গর্ব করছেন, সেটা ভাবলে অবাক লাগে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV