স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ:দলীয় নেতাদের গ্রেফতারের প্রতিবাদে ক্ষোভে ফেটে পড়ল বিজেপি৷ শুক্রবার সকাল থেকেইচোপড়া থানার সামনে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা।

বৃহস্পতিবার চোপড়ায় বিজেপির একটি মিছিলকে কেন্দ্র করে তৃণমূল ও বিজেপির কর্মী সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।ঘটনায়দুপক্ষের মোট ১৫ জনজখম হয়। চোপড়া থানার সামনে অবৈধভাবে জমায়েত ও সংঘর্ষে মদত দেওয়ার অভিযোগে রাতেই দুপক্ষের কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়৷

সাইন আখতার সহ মোট ছয়জনকেগ্রেফতার করা হয়েছে।এরমধ্যে একজন তৃণমূল কর্মী৷উল্লেখ্য গত ২৬ জুলাই চোপড়ার বহিষ্কৃত তৃণমূল সভাপতি সাইন আখতার বিজেপির রাজ্যসভাপতি দিলিপ ঘোষের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করেন।
আজ, শুক্রবার বিজেপি নেতা সাইন আখতার সহ বাকিদের ইসলামপুর আদালতে তোলা হয়। এদিন সকাল থেকেই সাইন আখতারকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা। পরিস্থিতি সামাল দিতে নামানো হয়েছে কমব্যাট ফোর্স সহ বিশাল পুলিশ বাহিনী৷

বিজেপি নেতা সুরজিৎ সেন বলেন, এ বিষয়ে রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে কথা হয়েছে। আমাদের রাজ্যে সভাপতি দিলীপ ঘোষ সহ বিভিন্ন নেতারা শীঘ্রই আসবেন এবং মহকুমা শাসক এর দফতরের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।