ফের মধ্যবিত্তের কপালে ভাঁজ। পেঁয়াজ, দুধের পর দাম বাড়তে চলেছে বিস্কুটেরও। ২০২০ থেকেই বাড়বে দাম। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে এমনটাই।

জানা যাচ্ছে, ‘ পার্লে জি’ ও ‘ব্রিটানিয়া’ কোম্পানি তাঁদের বিস্কুটের দাম বাড়াতে চলেছে। সূত্র জানাচ্ছে, ৩ থেকে ৬ শতাংশ বাড়বে দাম। আগামী জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে বাড়তে চলেছে এই দাম।

তবে একটি সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে পার্লে জি-র অবস্থা এই মুহূর্তে মোটেই ভালো নয়। একাধিক কর্মীকে পার্লে ছাটাই করেছে বলেও জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য, শনিবার দেশ জুড়ে বৃদ্ধি পায় দাম দুধের দাম। ভারতের দুটি প্রথম সারির ডেয়ারি সংস্থা আমুল ও মাদার ডেয়ারি দাম বাড়ানোর কথা ঘোষণা করে। তারপরেই বৃদ্ধি পায় দাম। মূলত জোগান কমে যাওয়ায় দাম বাড়ানো হয়েছে বলে জানানো হয়। মাদার ডেয়ারি জানিয়েছে, বর্ষার কারণে দুধে জোগান কমে গিয়েছে। এই কারণেই দুধ এবং দুগ্ধজাত জিনিসের দাম বাড়ানো হয়েছে।

তবে শুধুমাত্র যে পেঁয়াজ, দুধের দাম বেড়েছে তা নয়, একইসঙ্গে বাড়ছে বাজারে অন্যান্য সবজি ও মাছের দাম। পেঁয়াজের ক্ষেত্রে দেশবাসী যে কবে ১৫০ টাকায় পেঁয়াজ কমেছে তা মনে করতে পারছেন না কেউই।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।