স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শহর থেকে ফের বেআইনি পাখি উদ্ধার করল বন দফতর৷ কলকাতার গালিব স্ট্রিটে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হানা দেয় বন দফতরের আধিকারিকরা৷

সেই অভিযানেই এই এলাকা থেকে অসংখ্য পাখি উদ্ধার করেন তারা৷ ঘটনায় ছ’জনকে জড়িত সন্দেহে আটক করা হয়েছে।

রবিবার সকালে ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল সেল ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরো গালিব স্ট্রিটে তল্লাশি অভিযান চালায়৷ এই অভিযানে আধিকারিকরা ছ’জন সন্দেহভাজনকে আটক করে৷ আটক করে তাদের দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়৷ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এলাকার একটি গোডাউন থেকে একাধিক বাজারের ব্যাগ উদ্ধার করেন তারা৷ এই ব্যাগ থেকে অসংখ্য পাখি উদ্ধার করা হয়৷

সূত্রের খবর, এই পাখিগুলি বর্ধমান এবং আসানসোল থেকে আনা হয়েছিল৷ এই পাখিগুলিকে কলকাতায় বিক্রি করার উদ্দেশ্যেই আনা হয়েছিল বলে সূত্রের খবর৷ আটক ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করে শহরে আর কোনও জায়গায় বেআইনিভাবে পাখি বিক্রি করার উদ্দেশ্যে রাখা রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখছেন আধিকারিকরা৷ এই ঘটনায় জড়িত অন্যদের খোঁজ শুরু হয়েছে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.