আগরতলা: বেতন বাড়াতে এক বিশেষ কমিটি তৈরি করলেন নয়া মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। ত্রিপুরায় ক্ষমতায় আসার পরই কর্মীদের জন্য এই বিশেষ উদ্যোগ নিলেন তিনি। নির্বাচনের আগের প্রতিশ্রুতি পূরণেই এমন সিদ্ধান্ত ত্রিপুরার নয়া সরকারের।

নতুন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হল, সরকারি কর্মচারীদের জন্য সপ্তম বেতন কমিশন গঠনের বিষয়টি পর্যালোচনা করতে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গড়া হবে। তবে ওই কমিটি কার নেতৃত্বে হবে তা জানানো হয়নি।

ত্রিপুরার নির্বাচনে সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিজেপি-র বড় প্রতিশ্রুতি ছিল বেতনবৃদ্ধি। সপ্তম পে কমিশনের সুপারিশের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ মাইনে দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। শনিবার মহাকরণে বৈঠক শেষে সপ্তম পে কমিশনে সম্মতির কথা জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে সামনে উপনির্বাচন থাকায় নির্বাচনী বিধির কারণে এর বেশি কিছু বলেননি তিনি।

এছাড়াও আরও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ওই মন্ত্রিসভার বৈঠকে। আগরতলা বিমানবন্দরের নাম বদলে মহারাজা বীরবিক্রম কিশোর মাণিক্য বিমানবন্দর করা হবে বলে ঠিক করা হয়েছে। আর রাজ্যে নির্বাচনের আগে দু’জন সাংবাদিকের মৃত্যু হয়েছিল। শান্তনু ভৌমিক এবং সুদীপ দত্ত ভৌমিক। সাংবাদিকদের দিক থেকে আবেদন ছিল সিবিআই তদন্তের। মন্ত্রিসভা এবিষয়ে সহমত হয়েছে। দুটি মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানানো হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।।

নতুন মন্ত্রিসভায় স্বরাষ্ট্র, পূর্ত, সাধারণ প্রশাসন, শ্রম, তথ্য ও সংস্কৃতির মতো দফতর নিজের হাতে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। অর্থ ও বিদ্যুৎ দফতর পেয়েছেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা। সুদীপ রায় বর্মণ হয়েছেন স্বাস্থ্য এবং শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী। কংগ্রেস ছেড়ে আসা আর এক বর্ষীয়ান নেতা রতনলাল নাথকে দেওয়া হয়েছে শিক্ষা ও আইন দফতরের দায়িত্ব।