নয়াদিল্লি: ভারত-পাক দ্বন্দ্ব নিয়ে দড়ি টানাটানির মাঝে এবার মুখ খুললেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রধান। পাক অধিকৃত কাশ্মীর এখন জঙ্গিদের দখলে রয়েছে বলে পাকিস্তানকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দেন তিনি।

কিছুদিন আগেই সংঘর্ষ-বিরোধী চুক্তি লঙ্ঘন করে ভারত-পাক সীমান্ত অঞ্চলে ভারী গোলাবর্ষণ করে পাকিস্তান। জবাবে নীলম উপত্যকায় থাকা বেশ কিছু জঙ্গি লঞ্চপ্যাডকে লক্ষ্য করে প্রত্যাঘাত হানে ভারত। ভারতের প্রবল গোলাবর্ষণে ধ্বংস হয়ে যায় বেশ কিছু জঙ্গি লঞ্চপ্যাড। ৬-৭জন জঙ্গি ছাড়াও বেশ কিছু পাক সেনা নিহত হয়েছেন বলেও জানান ভারতীয় সেনাপ্রধান। তবে প্রতিবারের মত এবারেও সেই সব অভিযোগই নস্যাৎ করে দেয় পাকিস্তান।

দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার ত্রালে গত বুধবার সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয় হামিদ লেলহারি-সহ দুই জঙ্গি। আল-কায়দার জম্মু-কাশ্মীর শাখা আনসার গাজওয়াত-উল-হিন্দ (এজিএইচ)-এর প্রধান হামিদ লেলহারিকে খতম করে দেয় ভারতীয় সেনা। লেলহারি প্রাক্তন প্রধান জাকির মুসার উত্তরসূরি ছিল। আর লেলহারির মৃত্যুর পরেই বারবার অশান্ত হয়ে উঠেছে উপত্যকা। ওয়াঘার ওপার থেকে কাশ্মীরকে অশান্ত করবার জন্যে বারবার চেষ্টা চলছে বলে দাবি করেছে ভারত।

কিছুদিন আগেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং বলেন ‘এবার পরবর্তী লক্ষ্য হওয়া উচিত পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে ভারতের অন্তর্গত করা’ তাঁর এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বিপিন রাওয়াত টুইট করে লেখেন ‘জম্মু এবং কাশ্মীর মানে পাক অধিকৃত কাশ্মীর,গিলগিট-বালতিস্থানকেও বোঝায়।”

পাক অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বিপিন রাওয়াত বলেন, “পাক অধিকৃত কাশ্মীরের উপর আদতে পাকিস্তান সরকারের কোনও নিয়ন্ত্রণ নেই। শুধুমাত্র জঙ্গিরাই এখন গোটা পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে নিয়ন্ত্রণ করছে।”

ভারত-পাক তীব্র দ্বৈরথের মাঝে ভারতীয় সেনাপ্রধানে এই মন্তব্য যথেষ্ট ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলেই মনে করছে কূটনীতিক মহল।