স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা মোকাবিলায় সরকারের ভূমিকার প্রতিবাদ জানিয়ে রেড রোডে প্রতীকী প্রতিবাদে সামিল হয়েছিল বাম নেতৃত্ব। সামাজিক দূরত্বের নীতি মেনে অবস্থান বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র, মহম্মদ সেলিম, সুজন চক্রবর্তীর মতো নেতারা। কিন্তু, লকডাউন ভেঙে অবস্থান বিক্ষোভের অভিযোগে বাম শীর্ষনেতাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ভ্যানে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁদের। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র।

সোমেন মিত্র বলেছেন, “রেশন দুর্নীতি রোধ, পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো , চিকিৎসা পরিকাঠামোর উন্নতি সহ বিভিন্ন দাবিতে রেড রোডে বাম দলগুলির কর্মসূচিকে প্রদেশ কংগ্রেস সম্পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছে। প্রদেশ কংগ্রেসকে এই কর্মসূচিতে যোগদান করার জন্য আহ্বান করা হয়েছিল, কিন্তু জাতীয় কংগ্রেস সারা দেশেই লক ডাউনের সময় সমস্ত কর্মসূচি স্থগিত রেখেছি। সেই কারণে আমরা এই কর্মসূচিতে যোগদান করতে পারিনি। বাম নেতারা লক ডাউন মেনেই বিক্ষোভ করছিলেন। তা সত্ত্বেও তাঁদের গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রদেশ কংগ্রেস এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছে।”

সন্দেহভাজন রোগীদের লালারসের নমুনা পরীক্ষা, করোনায় মৃতের সংখ্যা, লকডাউনের সময় বিভিন্ন জেলায় রেশন বণ্টনে গোলমাল, ভিনরাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের নগদ টাকা দেওয়ার ব্যবস্থা ইত্যাদি কয়েকটি ইস্যুতে গত কয়েকদিন ধরেই সরব হয়েছিল বাম-কংগ্রেস। বিধানভবন সূত্রে জানা গিয়েছে, কংগ্রেসও প্রাথমিকভাবে শনিবার বামেদের এই কর্মসূচিতে অংশ নেবে বলে জানিয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে দেশের কোথাও প্রকাশ্য কর্মসূচি করার ক্ষেত্রে এআইসিসি নিষেধাজ্ঞা জারি করায় এই কর্মসূচি থেকে সরে এসেছে তারা।

বিধানভবনের নেতাদের দাবি, রাজনৈতিক মতবিরোধ থাকলেও করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পাশে থেকেই কাজ করার কথা জানিয়েছেন রাহুল গান্ধী। সেই সঙ্গে এআইসিসি থেকেও জানানো হয়েছে, সরকারের সমালোচনা করলেও লকডাউনের মধ্যে রাস্তায় নেমে কোনও কর্মসূচি করা এখন সমীচীন হবে না।

এই যুক্তিকে সামনে রেখেই সোমেন-মান্নানরা আজকের এই কর্মসূচিতে না থাকার কথা বিমানবাবুকে জানিয়ে দেন। তবে রাজ্যে বাম-কংগ্রেস একই সঙ্গে লড়াই করবে বলে জানিয়েছেন প্রদেশ সভাপতি। এদিন বাম নেতাদের গ্রেফতারির তীব্র নিন্দা করে টুইট করে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে একহাত নিয়েছেন সিপিএমের এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিও।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।