বিজয় রায়, কলকাতা: গোঘাটে আক্রান্ত বর্ষীয়ান বাম নেতা তথা কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়র বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য৷তাঁকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ৷অভিযোগের তির তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে৷অভিযোগ অস্বীকার শাসক দলের৷

আরও পড়ুন: জন্মদিনেই আক্রান্ত মান্নান, বাম-কং জোটে জোয়ার!

সেভ ডেমোক্রেসি ফোরামের তরফে শনিবার হুগলির ভাবদিঘি যাচ্ছিলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য৷অভিযোগ উল্লাস নগরের সামনে তাঁদের গাড়ি আটকে জনা ২০ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে৷এরপর বিকাশবাবুকে গাড়ি থেকে টেনে হিঁচড়ে নিচে নামিয়ে তাঁর উপর অত্যাচার চালানো হয়৷কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়রকে কিল-চর মারা হয় বলেও অভিযোগ৷ এই বিষয়ে বিকাশবাবু বলেন, ‘‘নারদ মামলা নিয়ে আদালতে সরব হওয়ার কারণেই আমার উপর হামলা করা হল৷ তৃণমূলের গুণ্ডা বাহিনী অনেকদিন ধরেই আমাকে টার্গেট করেছিল৷’’ তবে বিকাশবাবু জানিয়েছেন তাঁর চোট খুব গুরুতর না হলেও বুকে একটা ব্যথা অনুভব করছেন৷তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে একটি ওষুধও খেয়েছেন তিনি৷

আরও পড়ুন: “পাঁচ বছরেও শিক্ষা নেয়নি বামেরা”

এদিকে পুরো বিষয়টি অস্বীকার করেছেন গোঘাটার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক মানস মজুমদার৷ এই বিষয়ে মানসবাবুকে ফোন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন৷ যতদূর খবর আছে, গোঘাটের শহিদ পরিবারের আত্মীয়রাই এই বিক্ষোভ দেখিয়েছেন৷তবে কেউ কোনও রকম গায়ে হাত তোলেনি৷’’ এর সঙ্গে দলের কোনও রকম যোগ নেই বলেও দাবি করেন মানসবাবু৷ পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, ‘‘শহিদ পরিবারের আত্মীয়রা এদিন বিকাশবাবুর কাছে জানতে চেয়েছিলেন, তাঁদের পরিবারের লোকেরা যখন খুন হয় তখন কোথায় ছিলেন? এতদিন আসেননি কেন?’’

কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়র তথা হাইকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবীর উপর এই ধরনের হামলার ঘটনা নিয়ে সরব সিপিএম৷এই বিষয়ে নিজের ট্যুইটারের দেওয়ালে বক্তব্য পোস্ট করে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘পুলিশের সামনেই বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের উপর যে হামলার ঘটনা ঘটেছে তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি৷’’ এই বিষয়ে আজ বিকালে কলকাতা জেলা বামফ্রন্টের তরফে একটি প্রতিবাদ মিছিলেক ডাক দেওয়া হয়েছে৷মিছিলে বর্ষীয়ান বাম নেতা বিমান বসু নেতৃত্ব দিতে পারেন সিপিএম সূত্রে খবর৷