পাটনা: সপ্তদশ বলোকসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ্যে ইতিমধ্যেই, আর তার থেকে স্পষ্ট দেশে চলছে গেরুয়া ঝড়৷ কিন্তু তার মধ্যেও উল্লেখযোগ্যভাবে একটি তথ্য উঠে এসেছে, আর তা হল, বিহারে NOTA-তে যে ভোট পড়েছে তা রেকর্ড সৃষ্টি করেছে৷ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, বিহারে দুই শতাংশ ভোট পড়েছে নোটায়৷

নোটা-তে দমন-দিউয়ে ১.৭ শতাংশ, অন্ধ্রপ্রদেশে ১.৪৯ শতাংশ, ছত্তিশগড়ে ১.৪৪ শতাংশ ভোট পড়েছে৷ ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্ট নোটা সংযোজন করে তালিকায়৷ তালিকাভুক্ত কোনও প্রার্থীকে পছন্দ না হলে নোটা-তে ভোট দিয়ে নিজের মতামত ব্যক্ত করতে পারেন ভোটাররা৷

ফাইল ছবি

২০১৪ সালে প্রথমবার লোকসভা নির্বাচনে এর ব্যবহার শুরু হয়৷ প্রায় ৬০ লক্ষ ভোটার নোটা-তে ভোট দেয়৷ আর এবার ২০১৯ সালে বিহারের গোপালগঞ্জে ৫১,৬৬০ জন ভোটার NOTA-কেই বেছে নিয়েছে৷ এর পাশাপাশি পশ্চিম চম্পারণ(৪.৫১ শতাংশ), নাওয়াদা(৩.৭৩ শতাংশ) এবং জাহানাবাদে(৩.৩৭ শতাংশ) বহু ভোটার NOTA অপশনটিকেই বেছে নিয়েছে৷

এমনকি বারাণসী লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জয়ী হলেও ৪,০৩৭ ভোটার NOTA-তে ভোট দিয়েছেন৷ কেরলের ওয়ানাড় থেকে জয়ী হয়েছে রাহুল গান্ধী৷ এই ওয়ানাড়ে NOTA-তে ভোট পড়েছে ০.২শতাংশ, অর্থাৎ ২,১৫৫ ভোটার এই অপশনকেই বেছে নিয়েছেন৷ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রগুলির মধ্যে অমিত শাহের গান্ধীনগরে ১৪,২১৪ জন, রবি শঙ্কর প্রসাদের পাটনা সাহিবে ৫,০৭৬ জন, এবং গৌতম গম্ভীরের পূর্ব দিল্লীতে ৪,৯২০ জন ভোটার নোটাতে ভোট দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে৷