পাটনা: ফের সরগরম বিহার। দুর্নীতির অভিযোগে শিক্ষামন্ত্রী মেওয়ালাল চৌধুরীর পদত্যাগের পর বিরোধীদের কটাক্ষ ছট্ কাটলেও হোলি পালন করতে পারবে না নীতীশ কুমারের নেতা চলা এনডিএ সরকার।

বিরোধী মহাজোটের আরজেডি নেতা অরুণ কুমার যাদবের টুইট বিরোধীদের হুঁশিয়ারিতে সরকার বাধ্য হয়েছে দুর্নীতিতে অভিযুক্ত শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ গ্রহণ করতে। বেশিদিন নেই এই সরকার।

হোলি উৎসব আগামী বছর ২৯ মার্চ। যেভাবে চার মাসের ব্যবধানে সরকার পতনের ইঙ্গিত দিয়েছেন
আরজেডি নেতা, তাতে শোরগোল পড়েছে বিহারে।

অন্যদিকে বিহারের শীর্ষ বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদী সরাসরি আক্রমণ করেছেন আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদবকে। শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগ করার ইস্যুতে বিজেপির যুক্তি, তেজস্বীর শিক্ষাগত যোগ্যতা কী? আর পদত্যাগী প্রাক্তন মন্ত্রীর হুমকি দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ না হলে ৫০ কোটি টাকার মানহানি মামলা করব।

বিধানসভা নির্বাচনে ২৪০টি আসনের মধ্যে সংখ্যা গরিষ্ঠতার ১২২টি আসন দরকার ছিল। এনডিএ জোট পেয়েছে ১২৬টি আসন। বিরোধী মহাজোট পেয়েছে ১১০টি আসন। গরিষ্ঠতার নিরিখে সূক্ষ্ণ তারে হাঁটছে এনডিএ। বিজেপি এই জোটের সর্বাধিক আসন পেলেও পূর্বঘোষণা অনুসারে জেডিইউ কে মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দেয়। তবে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের পাশাপাশি দুজন উপমুখ্যমন্ত্রী নিয়োগ করা হয়েছে। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, প্রবল চাপে নীতীশ কুমার কুর্সি ছাড়তে পারেন।শিক্ষামন্ত্রীর পদত্যাগের পর আরজেডির হুমকি তেমনই ইঙ্গিত দিচ্ছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.