পাটনা: ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল পাইলট হবেন৷ তবে সুযোগ মেলেনি৷ বিহারের ছাপরার বাসিন্দা এই ব্যক্তি নিজের স্বপ্ন কিন্তু সফল করেছেন৷ তবে সবাইকে চমকে দিয়ে যে পদ্ধতি কাজে লাগিয়েছেন তিনি, তা এককথায় নজিরবিহীন৷

নিজের টাটা ন্যানো গাড়িটিকেই হেলিকপ্টার বানিয়েছেন তিনি৷ চমকে গেলেন? ঠিকই পড়েছেন৷ একটি ন্যানো গাড়িকে হেলিকপ্টারে পরিণত করেছেন মিথিলেশ প্রসাদ৷ দিব্যি উড়ছে সেই গাড়িরূপী হেলিকপ্টার৷

আরও পড়ুন : ‘সমঝোতা’র পর এবার যোধপুর-করাচির ট্রেনও বন্ধ করল পাকিস্তান

শুধু বাইরে থেকেই নয়, ভিতরের ইঞ্জিন পালটে রীতিমত হেলিকপ্টারের রূপ দেওয়া হয়েছে৷ রং করা হয়েছে৷ চকচকে সেই নতুন হেলিকপ্টার উড়ে বেড়াচ্ছে মাঠে৷ তবে এটাই প্রথম নয়, যে কোনও গাড়িকে হেলিকপ্টারের রূপ দেওয়া হয়েছে৷

এর আগে উত্তরপূর্ব চিনের একজন কৃষক, জু ইয়ুহু প্লেনে চড়ার স্বপ্ন সত্যি করেছিলেন, নিজে প্লেন বানিয়ে৷ এয়ার বাস এ৩২০ মডেলের একটি প্লেন তৈরি করে ফেলেছিলেন তিনি৷ এমনকি তৈরি করেছিলেন রানওয়েও৷

আরও পড়ুন : মদ বিক্রির পরিমাণ আরও বাড়াতে হবে, বারগুলিকে নির্দেশ রাজ্যের

এছাড়াও পাকিস্তানের এক ব্যক্তি যিনি পেশায় পপকর্ণ বিক্রেতা ছিলেন তাঁরও বিমান চালক হওয়ার স্বপ্ন ছিল৷ মহম্মদ ফইয়াজ নামের ওই ব্যক্তি প্রায় ৯০ হাজার টাকা খরচ করে বানিয়ে ফেলেছিলেন একটি আস্ত প্লেন৷ এজন্য ব্যাংক থেকে রীতিমত ঋণ নিয়েছিলেন তিনি৷ তবে সেই বিমান উড়বার আগেই পুলিশ আটকায়, অনুমতি না থাকার জন্য৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.