প্রতীকী ছবি

পটনা: তাঁরা লড়ছেন। গোটা দেশের চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের স্যালুট জানাচ্ছেন সবাই। এরই মাঝে একটু ভিন্ন ঘটনার সাক্ষী থাকল বিহার। করোনা পরিস্থিতিতে যেখানে ছুটি পাচ্ছেন না কেউ, সেখানে ৩৬২ জন চিকিৎসককে অনুপস্থিত দেখা গেল বিহার জুড়ে। তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই কাজে যোগ দিচ্ছেন না এঁরা।

৩১শে মার্চ থেকে ১২ই এপ্রিল পর্যন্ত কোনও কারণ না দেখিয়েই কাজ থেকে অনুপস্থিত রয়েছেন এই চিকিৎসকরা। বিহারের স্বাস্থ্য দফতর থেকে এঁদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে কড়া চিঠি পাঠানো হয়েছে। শোকজ করে চিঠি দেওয়া হয়েছে এঁদের। জানতে চাওয়া হয়েছে, কেন তাঁরা কাজে যোগ দিচ্ছেন না।

ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট ২০০৫ ও এপিডেমিক ডিজিস অ্যাক্ট ১৮৯৭-এর ধারায় এঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর এই ৩৬২ জন চিকিৎসকই সরকারি হাসপাতালে কর্মরত। বিহারের ৩৭টি জেলায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছেন তাঁরা। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে বিহারের স্বাস্থ্য দফতর।

এরই মধ্যে বিহার সরকার মাতৃত্বকালীন ছুটি ও পড়াশোনা সংক্রাম্ত ছুটি ছাড়া বাকি সবরকম লিভ বা ছুটি বাতিল বলে ঘোষণা করেছে। ৩১শে মে পর্যন্ত এই সব ছুটি বাতিল বলে জানানো হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে চিকিৎসা ক্ষেত্রে লোকবল জরুরি, তাই ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে, মঙ্গলবার নতুন করে ৪ শিশু সহ মোট ৭জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এই নিয়ে বিহারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৩৫। দেশেও বেড়েছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। একধাক্কায় ৫০ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছে দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতে মোট করোনা আক্রান্ত ৪৯ হাজার ৩৯১ জন, মৃত ১৬৯৪। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান থেকে এই তথ্য মিলেছে।

মোট আক্রান্তের মধ্যে দেশে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৪ হাজার ১৮২ জন। বিদেশে ফিরে যাওয়া আক্রান্তের সংখ্যা ১ জন ও মৃত্যু হয়েছে ১৬৯৪ জনের। দেশের মধ্যে সর্বাধিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মিলেছে মহারাষ্ট্রে। সেখানে মৃতের হারও সর্বাধিক। এরপরেই এই তালিকায় রয়েছে গুজারাত ও তৃতীয় স্থান দখল করেছে দিল্লি।

অন্যদিকে দেশে এই মুহূর্তে চলছে তৃতীয় দফার লকডাউন। আগের দুই দফার মতো কড়াকড়ি থাকছে না লকডাউনের তৃতীয় দফায়। গ্রিন জোনে কিছু বাদে সব ধরণের পরিষেবাই চালু রাখার কথা বলা হয়েছে। বাস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিতে পারবে বাসগুলি। এছাড়া গ্রিন জোনে ই-কমার্স সংস্থাগুলি অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ছাড়াও অন্যান্য দ্রব্য সরবরাহ করতে পারবে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV