নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ি ঘিরে তৃণমূলের বিক্ষোভ৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর অঞ্চলে সভা করতে গিয়েছিলেন ভারতী৷ সেখানেই তাঁর কনভয়ের ওপর হামলা চলে বলে অভিযোগ৷ রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুর ৪ নং অঞ্চল গোলার এলাকায় বিজেপির সভা হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ, ঘাটালের প্রার্থী ভারতী ঘোষ, অন্তরা ভট্টাচার্য সহ বহু বিজেপি কর্মী সমর্থক।

আরও পড়ুন : তালা বন্ধ কার্যালয় খুলে নন্দীগ্রামে শক্তি দেখাল সিপিএম

সভা শেষ করে বিজেপি নেতৃত্ব যান ৫ নং অঞ্চল অমৃতপুর এলাকায়। সেখানেই তৃণমূলের কিছু কর্মী হাতে ইঁট নিয়ে আক্রমণ চালায় বলে অভিযোগ। এলাকায় ভারতী ঘোষকে দেখে তারা আরও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে৷ তবে সঙ্গে সঙ্গেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনা স্থলে পৌঁছয় পুলিশ৷

অভিযোগ, কনভয় থেকে ভারতী ঘোষ নেমে এলে তাঁকে ঘিরে আরও বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তারা। কটুক্তি করে৷ কনভয় ওই এলাকা দিয়ে যেতে দেওয়া হবে না বলে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল কর্মী৷ এলাকায় পৌঁছন কেশপুর থানার ওসি৷ তাঁরই নির্দেশে ভারতী ঘোষের কনভয় অন্যদিকের রাস্তা ধরে৷ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়৷

তবে এই হামলা ও কটুক্তিকে পাত্তা দিতে নারাজ রাজ্য বিজেপি সভাপতি৷ দিলীপ ঘোষের বক্তব্য, তৃণমূলের কোনও কর্মী সংগঠনই ওই এলাকায় নেই৷ তাই তাদের হামলা চালানোর ক্ষমতাও নেই৷ কার্যত তাচ্ছিল্যভরেই তৃণমূলের উদ্দ্যেশ্যে কথাগুলো বলেন দিলীপ ঘোষ৷

উল্লেখ্য, রাজ্যে পালা বদলে’র পর মুখ্যমন্ত্রী’র ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত ছিলেন আইপিএস ভারতী ঘোষ৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপারও করা হয় তাঁকে৷ ভারতীর বিরুদ্ধে সরব ছিল বিরোধীরা৷

কিন্তু দিন বদলেছে৷ বিজেপির মুকুল রায়ের সঙ্গে যোগাযোগ থাকায় তৃণমূলের রোষে পড়তে হয় তাঁকে৷ অভিযোগ খোদ প্রাক্তন আইপিএসে’র৷ চাকরি থেকে পদত্যাগের পর একদা তৃণমূলের ঘনিষ্ট ভারতী ঘোষ এখন বিজেপির ঘাটালের প্রার্থী৷ তাঁর বিপক্ষে তৃণমূলের দেব৷