স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: রক্তের সম্পর্কে ওরা কেউ ভাই বোন নয়৷ ভালোবাসারা টানেই একে অপরের কাছাকাছি ওরা৷ ‘ওরা’ জলপাইগুড়ির কোরক হোমের কচিকাঁচার দল৷ ভাইদের কপালে ফোঁটা দিয়েই আনন্দে মাতল হোমের ছোট শিশুরা৷

এদের মধ্যে অনেকেই পরিবারহীন৷ আবার অনেকের পরিবার থেকেও নেই৷ এরা সকলেই বড় হয়ে উঠছে জলপাইগুড়ির এই কোরক হোমে৷ প্রতিবছরের মতোই এবছরেও হোমে অনুষ্ঠিত হল ভাইফোঁটা৷ স্পন্দনের ছোট ছোট বোনেরা ভাই ও দাদাদের কপালে ফোঁটা দিয়ে মঙ্গল কামনা করে। সঙ্গে চলল উপহারের আদান প্রদান। হোমের ছেলেদের হাতে তুলে দেওয়া হয় চকোলেট ও কলম।

অন্যদিকে হোমের ভাইয়েরা বোনদের হাতে তুলে দেয় নিজেদের হাতে আঁকা ছবি। এই ভাইফোঁটা মধ্য দিয়ে এই হোমের পারিবারিক সম্পর্ককে আরও সুন্দর করে তোলা হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে শুক্রবার এই উৎসবের উদ্বোধন করেন জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের সভাধিপতি উত্তরা বর্মণ। উপস্থিত ছিলেন ডা. পান্থ দাসগুপ্ত, কোরক হোমের সুপার দেবব্রত দেবনাথ সহ বিশিষ্টজনেরা।

কোরক হোমের পাশাপাশি জেলা বিজেপি কার্যালয়ে বিজেপি মহিলা মোর্চার পক্ষ থেকে ফোঁটা দেওয়া হয় বিজেপি কর্মীদের৷ অন্যদিকে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালী থানার আই সি বিশ্বাশ্রয় সরকারকেও দেখা যায় ফোঁটা নিতে।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।