ফাইল ছবি

শান্তিপুর: বর্ষার শুরুতেই ঘোর দুশ্চিন্তায় নদিয়ার শান্তিপুরের ফুলিয়া বিহারিয়া এলাকার বাসিন্দারা। ভাগীরথীর ভাঙন ঘুম উড়িয়েছে বাসিন্দাদের। ইতিমধ্য়েই বিধার পর বিঘা চাষের জমি তলিয়ে গিয়েছে। জমির সঙ্গেই নদীর গ্রাসে গিয়েছে রাস্তাও।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ফি বার ভাঙন শুরু হলেই এলাকাবাসীদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা হয়। তবে সমস্যার স্থায়ী সমাধানে উদ্যোগ নেয় না প্রশাসন।

শান্তিপুর ব্লকের ফুলিয়া বিহারিয়ায় নতুন করে ভাগীরথী নদীর ভাঙন শুরু হওয়ায় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। বর্ষার শুরুতেই নদী গ্রাসে গিয়েছে বেশ কিছু জমি।

ক্রমেই ভাঙন পরিস্থিতি উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি করছে। ঘোরতর আতঙ্কে রয়েছেন নদীপাড়ের বাসিন্দারা। প্রতি বছর বিশেষত বর্ষা এলেই ভাগীরথী নদীর ভাঙন পরিস্থিতি উদ্বেগজনক আকার নেয়। এবছরও তার অন্যথা হয়নি। বর্ষার শুরুতেই নদীগর্ভে যেতে শুরু করেছে চাষের জমি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, প্রতি বছর ভাঙন শুরু হলেই প্রশাসন দায়সারাভাবে ভাঙন রোধে তৎপর হয়। বালির বস্তা ফেলে শুরু হয় ভাঙন রোধের কাজ। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই ওই এলাকাও নদীগর্ভে চলে যায়। ভাঙন রোধে স্থায়ী ব্যবস্থা নিতে কোনওরকম তৎপরতা নেয় না স্থাবনীয় প্রশাসন। এমনই অভিযোগ এলাকার বাসিন্দাদের।

শান্তিপুরের ফুলিয়া বিহারিয়া মাঠপাড়া এলাকায় সম্প্রতি নদী ভাঙন রোধের কাজ শুরু হয়। তবে কাজ শুরুর পরেই দিন কয়েক আগে থেকেই ওই এলাকার কিছু দূরে ফের নদী ভাঙন শুরু হয়।

ভাগীরথীর গর্ভে তলিয়ে যায় এলাকার বিঘার পর বিঘা জমি। এবারও ভাঙন প্রতিরোধে প্রশাসনিক আশ্বাস মিলেছে। তবে আদৌ সেই কাজ কতটা রুখতে পারবে নদী-ভাঙন তা নিয়েই ঘোর দুশ্চিন্তায় বাসিন্দারা।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV