আজকের দিনে সাধারণ মানুষের জীবনে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ মোবাইল নেটওয়ার্ক । আর সেই কারণে ভারতের বাজারে রয়েছে বেশ কিছু টেলিকম কোম্পানি। আর বারংবার ক্রেতাদের কথা মাথাতে রেখে তিনটি টেলিকম কোম্পানির তরফে ভারতের বাজারে লঞ্চ করা হয়ে থাকে একের পর এক প্ল্যান। আর তার ফলে সুবিধা পেয়েছেন সাধারণ মানুষজন।

জিও, এয়ারটেল এবং ভোডাফোনের তরফে ভারতের বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে বেশ কিছু প্ল্যান। এই সকল প্ল্যান ক্রেতারা ব্যবহার করে থাকেন দীর্ঘ দিন ধরে। বিশেষ করে করোনা পরবর্তী সময়ে সাধারণ মানুষজনের কথা ভেবে এই তিন কোম্পানির তরফে নেওয়া হয়েছিল আকর্ষণীয় পদক্ষেপ। এর ফলে সুফল ভোগ করেছিলেন আমজনতা। তবে এক বছরের প্ল্যানের ক্ষেত্রে কোন নেটওয়ার্ক সুবিধাজনক তা একঝলকে দেখে নেওয়া যাক।

এয়ারটেলের তরফে বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে ২৪৯৮ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ২ জিই করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা। তার সঙ্গে রয়েছে আন লিমিটেড কল করার সুবিধা। প্রতিদিন ১০০ টি করে মেসেজ করতে পারবেন গ্রাহকেরা এই প্ল্যানে। ভ্যালিডিটি ৩৬৫ দিনের। এছাড়াও রয়েছে ২৬৯৮ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ২ জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা। এই প্ল্যানে রয়েছে আন লিমিটেড কলের সুবিধাও। এছাড়াও এই প্ল্যানে রয়েছে জনপ্রিয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম দেখার সুবিধা।

অন্যদিকে জিওর তরফে রয়েছে ২৩৯৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ২ জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা। সঙ্গে রয়েছে আন লিমিটেড কলের সুবিধা। এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ৩৬৫ দিনের।

একই ভাবে ভোডাফোন আইডিয়ার তরফে রয়েছে ২৩৯৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে দেড় জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা। সঙ্গে রয়েছে আন লিমিটেড অলের সুযোগ। এছাড়াও রয়েছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম দেখার সুবিধা। যদিও এই সকল প্ল্যান ছাড়াও ক্রেতাদের জন্য এই তিন কোম্পানির তরফে আনা হয়েছে আরও বেশ কিছু প্ল্যান। আর তার ফলে সুবিধা হয়েছে সাধারণ মানুষের।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।