গুরমেহরি কৌশলে ভিডিও পোস্ট করে প্রতিবাদী বঙ্গ তনয়া

কলকাতা: আবারও ফেসবুকে ভাইরাল প্ল্যাকার্ড হাতে মহিলার ভিডিও। কিছুদিন আগেই কার্গিল যুদ্ধে শহিদের মেয়ে গুরমেহর কৌরের ভিডিও নিয়ে দেশ জুড়ে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। এবার সেই একই কায়দায় ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করলেন বঙ্গ তনয়া মনীষা পৈলান।

২০১৫ সালের নভেম্বর মাসের ১৭ তারিখ। সারা বিশ্ব যখন প্যারিস হামলা নিয়ে আলোচনা করছে, ঠিক সেই সময়েই আঁধার ঘনিয়ে এসেছিল মনীষার জীবনে। কিছু দুষ্কৃতী অ্যাসিড হামলা করে ২১ বছর বয়সী মনীষার উপরে। ওই ঘটনায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার জয়নগরের বাসিন্দা মনীষার মুখ-বুক ঝলসে গিয়েছিল। এত দিন পরেও ধরা পড়েনি মূল অভিযুক্ত সেলিম হালদার।

পুলিশ যাদের গ্রেফতার করেছিল তারা সকলেই এখন জামিনে মুক্ত। সকালে প্রকাশ্যে ঘুরে বেরায় মনীষার সামনে দিয়ে। মূল অভিযুক্ত সেলিম এখনও হুমকি দেয় মনীষাকে। এহেন অবস্থায় নারী দিবসে ঘুরে দাঁড়ানোর সংকল্প নিয়েছে মনীষা। এই ধরণের আক্রান্ত মহিলাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে। নিজের এই বক্তব্যই ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করে সকলকে জানিয়েছে ২৩ বছরের মনীষা পৈলান।

- Advertisement -

গুরমেহরের ভিডিও দেখেই অনুপ্রাণিত হয়ে ফেসবুকে ভিডিও পোস্ট করার সিদ্ধান্ত নেয় মনীষা। Kolkata24x7-কে এই কথা জানিয়েছে অ্যাসিড আক্রান্ত মনীষা পৈলান। তাঁর কথায়, “আমার নিজের মেসেজটা অনেকের কাছে পৌঁছানোর ছিল। গুরমেহরের ভিডিওটা দেখে মনে হয়েছিল এই পদ্ধতিটা প্রয়োগ করা যেতে পারে।” কেন তাঁর উপরে অ্যাসিড হামলা হল? আর কেনই বাঁ মূল অভিযুক্ত এখনও অধরা রয়েছে? এই প্রশ্ন গুলোর কোনও উত্তর নেই মনীষার কাছে।

All rights reserved by @ Kolkata24x7 II প্রতিবেদনের কোন অংশ অনুমতি ছাড়া প্রকাশ করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ