বেঙ্গালুরু: অনলাইনে জিনিস কিনে ঠকার ঘটনা আজকালকার দিনে খুব সামান্য ঘটনা। খবরের কাগজের পাতাতে প্রায়দিনই দেখা যায় অনলাইন ই কমার্স সাইটে জিনিসের অর্ডার দিয়ে প্রতারিত হয়েছেন সাধারণ মানুষজন। আর এবারে প্রতারিত হলেন বেঙ্গালুরুর এক ব্যাক্তি। জনপ্রিয় ই কমার্স সাইট ফ্লিপকার্টে আই ফোন ১১ প্রো অর্ডার দিয়ে পেয়েছেন নকল ফোন এমনটাই জানিয়েছেন।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে বেঙ্গালুরুর ইঞ্জিনিয়ার রজনীকান্ত কুশোয়া ৬৪ জিবি মেমোরি সম্পন্ন আইফোন ১১ প্রো অর্ডার দিয়েছিলেন ফ্লিপকার্টে। আর পেমেন্ট সংক্রান্ত সকল কাজ করে রেখেছিলেন। তাঁকে দিতে হয়েছিল ৯৩৯০০ টাকা। আশা করেছিলেন ঠিক সময়ে পেয়ে যাবেন সাধের ফোনটি। ফোন পেলেন কিন্তু তা দেখে আনন্দ না পেয়ে বরং অবাকই হলেন।

কুশোয়া আই ফোন ১১ স্টিকার লাগানো নকল ফোন পেয়েছেন। যা দেখে ২৬ বছর বয়সী এই যুবক নিজেই অবাক হয়ে গিয়েছেন।

প্রাথমিক ভাবে তিনি দেখে ভেবেক্সছিলেন আসন আইফোনই পেয়েছেন তিনি। কিন্তু ভাল করে দেখতেই সামনে চলে এল আসল সত্য। ওই ব্যাক্তি আরও জানিয়েছেন শুধু যে নকল অন পেয়েছেন তাই নয়। যে ফোনটি তিনি পেয়েছেন সেটিতে আইওএস সুবিধাও নেই। খুব সাধারণ অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে আইফোনের মত সাজিয়ে তাকে ঠকানো হয়েছে।

ফ্লিপকার্টে জানানোর পরে সেখানকার আধিকারিক জানিয়েছেন দ্রুত বিষয়টি দেখে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। এর আগে গত বছর মুম্বইয়ের এক ব্যাক্তি অনলাইনে আইফোন অর্ডার করে ঠকেছিলেন। তারপরে আবারও এই ঘটনা দেখিয়ে দিল অনলাইনে সুবিধার পাশাপাশি ঠিক কি কি ধরণের বিপদের সম্মুখীন হতে পারি আমরা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I