বেঙ্গালুরু: সিনেমা হলে জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন উঠে দাঁড়ানো আবশ্যক নয়৷ সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরেও জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন উঠে না দাঁড়ানোয় সিনেমা হলের মধ্যে এক যুবকের উপর চড়াও হল অন্যান্যরা৷ অভিযোগ, তাঁকে শারীরিকভাবে নিগ্রহ করা হয়৷ পরে জাতীয় সঙ্গীতের অবমাননার অভিযোগে পুলিশ ওই যুবককে গ্রেফতার করে৷ গোটা ঘটনাটি নিজের ট্যুইটারে পোস্ট করেন তিনি৷

বেঙ্গালুরুর সঞ্জয়নগর এলাকার বাসিন্দা বছর ২৯ এর জিতিন গত বুধবার আইনক্সে যান৷ সিনেমা শুরুর আগে যথারীতি জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়৷ ট্যুইটে তিনি জানান, সবাই যখন দাঁড়িয়ে পড়ে তখন তিনি নিজের আসনে বসেছিলেন৷ জাতীয় সঙ্গীত শেষ হওয়ার পরই শুরু হয় নিগ্রহ৷

জিতিনের অভিযোগ, সিনেমা হলে আসা বেশ কিছু লোক অন্যান্যদের নজরে আনে বিষয়টি৷ তারা চিৎকার করে বাকিদের উত্তেজিত করার চেষ্টা করে৷ এরপরই তারা সকলে মিলে জিতিনের সঙ্গে তর্কযুদ্ধ শুরু করে৷ জিতিনের কথায়, তিনি উত্তেজিন জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করেন৷ কিন্তু কেউ তাঁর কথা শোনার মতো অবস্থায় ছিল না৷ কিছুক্ষণ বাদেই তারা জিতিনের দিকে মারার জন্য তেড়ে আসে৷ অভিযোগ, তাঁকে শারীরিকভাবে নিগ্রহ করা হয়৷

খবর পেয়ে আইনক্সে আসে পুলিশ৷ জাতীয় সঙ্গীতের অপমান করার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়৷ জিতিন পুলিশের বিরুদ্ধেও অসহযোগিতার অভিযোগ আনেন৷ লেখেন, পুলিশের কাছে নিগ্রহকারীদের নামে অভিযোগ জানাতে চেয়েছিলাম৷ কিন্তু পরে পুলিশ আমার কোনও কথা শুনল তো না৷ উল্টে আমাকে থানায় নিয়ে যায়৷ যদিও পুলিশ জানায়, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে জিতিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷