কলকাতা: করোনা আতঙ্কের জেরে এবার রাজ্যের সব স্কুল-কলেজ বন্ধের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রীর দফতর এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে। আগামী ১৬ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সব স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বন্ধ থাকবে স্কুলের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষাও।

করোনার আতঙ্কের জেরে শনিবারই একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এমনটাই জানানো হয়েছে। তবে এ ক্ষেত্রে সূচি অনুযায়ী চলবে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিও বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ৩১ মার্চ পর্যন্ত আপাতত স্কুল-কলেজ-সহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ৩১ মার্চের পরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ইতিমধ্যেই একাধিক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার। জেলায় জেলায় বিভিন্ন হাসপাতালে করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। কী কী ধরনের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া যায় সেব্যাপারেও সরকারের তরফে চলছে প্রচার। ব্লকস্তরেও সচেতনতা বাড়াতে কাজ করছে সরকার। সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়েও সচেনতনতামূলক প্রচার চালানো হচ্ছে।

ভারতে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তেই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে শুরু করে কেন্দ্রীয় সরকার। সতর্কতামূলক কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে সেব্যাপারে স্বাস্থ্যমন্ত্রকও রাজ্যগুলিকে ওয়াকিবহাল করেছে। ইতিমধ্যেই করোনার সংক্রমণ রুখতে বিহার, উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লি সরকার ৩১ মার্চ পর্যন্ত ওই রাজ্যগুলির সব স্কুল, কলেজে ছুটি ঘোষণা করেছে।

মহারাষ্ট্র সরকারও সব রকম সভা-মিছিল নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এমনকী রাজ্যে রেস্তোরাঁ, জিম ও সিনেমাহল, সুইমিং পুলগুলিও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে।

ভারতে রীতিমতো আতঙ্ক তৈরি করেছে করোনা ভাইরাস। ইতিমধ্যেই দেশে ৮৩ জনের শরীরে মারণ এই ভাইরাসের হদিশ মিলেছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত বেড়ে দুই। দিল্লির জনকপুরীর বাসিন্দা এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

জানা গিয়েছে, বৃদ্ধার ছেলে কিছুদিন আগেই সুইৎজারল্যান্ড থেকে এসেছিলেন। তিনিও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। তাঁর শরীর থেকেই সংক্রমিত হয়েছে বৃদ্ধার শরীরে। এমনই মনে করছেন চিকিৎসকরা। বৃহস্পতিবারও কর্ণাটকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। কর্ণাটকের যে ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে তিনি কিছুদিন আগেই সৌদি আরব থেকে ফিরেছিলেন।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা