পাতিয়ালা: মন্দ আবহাওয়ার জন্য ঘরের মাঠে একের পর এক ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট হয়েছে বাংলার। ক্রস পুল থেকে নকআউটে যাওয়াই একসময় চ্যালেঞ্জের হয়ে দাঁড়িয়েছিল অভিমন্যু ঈশ্বরনদের সামনে। সেই চ্যালেঞ্জ যথাযথ সামলে শেষমেশ চলতি রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিল বাংলা। গ্রুপের শেষ ম্যাচে পঞ্জাবকে তাদের ঘরের মাঠে বিধ্বস্ত করল ঈশ্বরনের নেতৃত্বাধীন বাংলা দল।

লিগের শেষ দু’টি ম্যাচের আগে ছবিটা ছিল অন্যরকম। তবে রাজস্থান ও পঞ্জাবের বিরুদ্ধে পর পর দু’টি ম্যাচে জয় বাংলাকে নকআউটের টিকিট এনে দেয়। পাতিয়ালার ঘুর্ণি পিচে মনদীপ সিংদের বিরুদ্ধে লো স্কোরিং ম্যাচে ৪৮ রানের উত্তেজক জয় তুলে নেয় অভিমন্যু ঈশ্বরনরা।

টস জিতে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে বাংলা প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় ১৩৮ রানে। পালটা ব্যাট করতে নামা পঞ্জাবকে শাহবাজ আহমেদরা গুটিয়ে দেয় ১৫১ রানে। প্রথম ইনিংসের নিরিখে ১৩ রানে পিছিয়ে পড়া বাংলা দ্বিতীয় ইনিংসে অল-আউট হয় ২০২ রানে। অর্থাৎ জয়ের জন্য পঞ্জাবের সামনে লক্ষ্যমাত্রা দাঁড়ায় ১৯০ রানের। শেষ ইনিংসে পঞ্জাব অল-আউট হয়ে যায় ১৪১ রানে।

দুই ইনিংসে বাংলা হয়ে অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরি করেন মনোজ তিওয়ারি। প্রথম ইনিংসে ৭৩ রান করা মনোজ দ্বিতীয় ইনিংসে আউট হন ৬৫ রান করে। শাহবাজ আহমেদ বাংলার হয়ে প্রথম ইনিংসে ৫৭ রানে ৭ উইকেট দখল করেন। দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি নেন ৪৪ রানে ৪ উইকেট। আকাশ দীপ দুই ইনিংস মিলিয়ে মোট ৫টি উইকেট পকেটে পোরেন। শেষ ইনিংসে পঞ্জাবের হয়ে একা লড়াই চালান রমনদীপ সিং। তিনি ৬৯ রান করে অপরাজিত থাকেন। ঘূর্ণি পিচে লড়াকু ব্যাটিংয়ের জন্য ম্যাচের সেরা হন তিওয়ারি। লিগের ৮ ম্যাচে ৪টি জয় ও ৩টি ড্র-সহ বাংলা তুলে নেয় ৩২ পয়েন্ট। মাত্র ১টি ম্যাচে হারের মুখ দেখতে হয় ঈশ্বরনদের।