মুম্বই: অসমের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ বৃষ্টির জন্য ভেস্তে গিয়েছে। মিজোরাম ও মেঘালয়ের বিরুদ্ধে পর পর দু’টি ম্যাচে দুরন্ত জয় পর সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০ ট্রফিতে হোঁচট খেল বাংলা। হরিয়ানার কাছে গ্রুপের চতুর্থ ম্যাচে ৫ উইকেটে পরাজিত হল অভিমন্যু ঈশ্বরনরা।

বান্দ্রা কুর্লা কমপ্লেক্স হরিয়ানার বিরুদ্ধে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে বাংলা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময় ১২২ রান তোলে ঈশ্বরনরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে কার্যত অনায়াসে জয় তুলে নেয় হরিয়ানা। ১৭.১ ওভারে ৫ উইকেটে বিনিময় ১২৫ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায় তারা।

বাংলার হয়ে ওপেন করতে নেমে সর্বোচ্চ ৩০ রান করেন শ্রীবৎস গোস্বামী। ১৭ বলের আগ্রাসী ইনিংসে তিনি ২টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন। ২৮ বলে ২৬ রানের সতর্ক ইনিংস খেলেন শাহবাজ আহমেদ। এছাড়া মনোজ তিওয়ারি ১৪, ঋত্বিক রায় চৌধুরী ১৫ ও অগ্নিভ পান ১১ রানের যোগদান রাখেন। খাতা খুলতে পারেননি ক্যাপ্টেন অভিমন্যু। বিবেক সিং ও অর্ণব নন্দী উভয়েই ৭ রানের সংক্ষিপ্ত ইনিংস খেলেন। জয়ন্ত যাদব ও আশীষ হুডা ২টি করে উইকেট নেন। হার্ষাল প্যাটেল, যুবেন্দ্র চাহাল ও অমিত মিশ্র নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।

হর্ষাল ব্যাট হাতে মাঠে নেমে হরিয়ানা হয়ে সর্বোচ্চ ৩৫ রানের ইনিংস খেলেন। উইকেটকিপার রোহিত খেলেন ২৮ রানের কার্যকরী ইনিংস। ত্রেয়ক্স বালি ২৩ রান করে আউট হন। আকাশ দীপ ও শাহবাজ আহমেদ ২টি করে উইকেট নেন। ১টি উইকেট অর্ণব নন্দীর।

হারের পর বাংলা অধিনায়ক ঈশ্বরন ব্যাটসম্যানদের ঘাড়েই দায় চাপিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা স্কোর বোর্ডে পর্যাপ্ত রান তুলতে পারিনি। ব্যাটিং বিভাগের আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল। আমাদের ঠান্ডা মাথায় ব্যাট করার প্রয়োজন ছিল। এই পিচে লড়াই করার জন্য ১৪৫-১৫০ রান দরকার ছিল। বোলারদের দোষ দিয়ে লাভ নেই। ওরা নিজেদের কাজ যথাযথ করেছে।’