কলকাতা: শুধু উত্তর ২৪ পরগণায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ছাড়াল৷ শীর্ষে কলকাতা৷ শহরে মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৫ হাজারের বেশি৷ এছাড়া আরও কয়েকটি জেলার মৃত্যু ও সংক্রমণ করোনায় উদ্বেগ বাড়াচ্ছে বঙ্গে৷

রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য ভবন বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী, একদিনে উত্তর ২৪ পরগণায় করোনা আক্রান্ত ৮১৪ জন৷ তারফলে এই জেলায় মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ১৪৫ জন৷ আর কলকাতায় মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৫ হাজার ৯৯৭ জন৷

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা মিলে মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৬ হাজার ১৪২ জন৷ আর বাকি ২১ জেলায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৭৪ হাজার ৬৭১ জন৷ ফলে বাংলায় মোট সংক্রমণ ৪ লক্ষ ৮০ হাজার ৮১৩ জন৷

উত্তর ২৪ পরগণায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১৩ জনের৷ আর কলকাতায়ও এই সংখ্যাটা ১৩ জন৷ এই দুই জেলা মিলে একদিনে মোট মৃত্যু ২৬ জনের৷ আর বাকি ২১ জেলায় একদিনে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৮ জনের৷ তারফলে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় মোট ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

তবে একদিনে কলকাতায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৪১ জন৷ যা আক্রান্তের তুলনায় বেশি৷ তবে এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৬ হাজার ৮৪৬ জন৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় একদিনে সুস্থ ৯২৮ জন৷ এই জেলায়ও আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ বেশি৷ সব মিলিয়ে উত্তর ২৪ পরগণায় মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯১ হাজার ৯৫০ জন৷

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়া উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আরও কয়েকটি জেলার সংক্রমণ৷ এগুলো হল -হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হুগলী,দুই বর্ধমান,দুই মেদিনীপুর, নদীয়া,মুর্শিদাবাদ,মালদা,জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং ও কোচবিহার৷

এদিনের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত যথাক্রমে হাওড়া (৩১,০৬০),দক্ষিণ ২৪ পরগনায়(৩১,৭১৭),হুগলী (২৪,৯৮০),পশ্চিম বর্ধমান (১৩,০৭৬),পূর্ব বর্ধমান ( ১০,২৯২) জন৷ পূর্ব মেদিনীপুর ( ১৮,০০৮) ও পশ্চিম মেদিনীপুর (১৭,৮৯২) জন,নদীয়া ( ১৮,২২৪) জন,মুর্শিদাবাদ (১০,৭৯৫) জন৷ মালদা ( ১১,৪০৭) জন, জলপাইগুড়ি (১২,৩১৯) জন দার্জিলিং (১৫,২৮৮) জন ও কোচবিহার ( ১০,৫৩৯) জন৷ বাকি জেলায় সংক্রমণ ১০ হাজারের নিচে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I