কলকাতা: বাংলায় করোনায় এই পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ৮,৪২৪ জনের৷এদের মধ্যে ৪,৫৯৬ জনই কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার বাসিন্দা৷ বাকি ২১ জেলায় মাত্র ৩,৮২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

রবিবার সন্ধ্যায় রাজ্য স্বাস্থ্য ভবন বুলেটিনের তথ্য অনুযায়ী,কলকাতায় মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৬ হাজার ৭৩৩ জন৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ১ লক্ষ ৮১৯ জন৷ এই দুই জেলায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ৭ হাজার ৫৫২ জন৷ আর বাকি ২১ জেলায় আক্রান্ত ২ লক্ষ ৭৫ হাজার ৯৩২ জন৷ ফলে বাংলায় মোট আক্রান্ত ৪ লক্ষ ৮৩ হাজার ৪৮৪ জন৷

উত্তর ২৪ পরগণায় একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের৷ আর কলকাতায় এই সংখ্যাটা ১২ জন৷ এই দুই জেলা মিলে একদিনে মোট মৃত্যু ২৭ জনের৷ আর বাকি ২১ জেলায় একদিনে মোট মৃত্যু হয়েছে মাত্র ২১ জনের৷ তারফলে রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় মোট ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে৷

তবে কলকাতায় এই পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৭ হাজার ৬৮৮ জন৷ আর উত্তর ২৪ পরগণায় মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯২ হাজার ৮০৫ জন৷ দুই জেলা মিলে মোট সুস্থ ১ লক্ষ ৯০ হাজার ৪৯৩ জন৷ বাকি ২১ জেলায় মোট সুস্থ ২ লক্ষ ৬০ হাজার ২৬৯ জন৷ তারফলে বাংলায় মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৫০ হাজার ৭৬২ জন৷
কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনা ছাড়া উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আরও কয়েকটি জেলার সংক্রমণ৷ এগুলো হল -হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হুগলী,দুই বর্ধমান,দুই মেদিনীপুর, নদীয়া,মুর্শিদাবাদ,মালদা,জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং ও কোচবিহার৷

এদিনের স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী, মোট আক্রান্ত যথাক্রমে

হাওড়া (৩১,২০৫),দক্ষিণ ২৪ পরগনায়(৩১,৮৮২),হুগলী (২৫,০৭৬),পশ্চিম বর্ধমান (১৩,১২৪),পূর্ব বর্ধমান ( ১০,৪৩০) জন৷ পূর্ব মেদিনীপুর ( ১৮,০৫৯) ও পশ্চিম মেদিনীপুর (১৭,৯৫৫) জন,নদীয়া ( ১৮,৩৭৭) জন,মুর্শিদাবাদ (১০,৮২৫) জন৷ মালদা ( ১১,৪২৯) জন, জলপাইগুড়ি (১২,৩৬৬) জন দার্জিলিং (১৫,৩৩৭) জন ও কোচবিহার ( ১০,৫৬০) জন৷ বাকি জেলায় সংক্রমণ ১০ হাজারের নিচে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।